স্ত্রীকে লঞ্চ থেকে ফেলে দেয়ায় জিন-কবিরাজ আটক

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৮ অক্টোবর ২০১৬, ১৯:২৭
ফাইল ছবি

চাঁদপুর থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে স্ত্রীকে লঞ্চ থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ার ঘটনায় হামিদ মোল্লা নামের একজনকে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী।  

মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটার দিকে হাজীগঞ্জ উপজেলার ১০ নম্বর গন্ধর্ব্যপুর ইউনিয়নের পাচৈ গ্রামের মোল্লাবাড়ি থেকে হামিদকে আটক করে স্থানীয় জনতা। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে যায়।
হামিদ মোল্লা ওই বাড়ির মৃত সোনা মিয়া মোল্লার ছেলে। ৪২ বছর বয়সী হামিদ পেশায় জিন কবিরাজ নামে পরিচিত। তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম ফরিদগঞ্জ উপজেলার মানরী গ্রামের জলিল মাস্টারবাড়ির মো. হোসেনের মেয়ে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য মনির হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল সাতটায় চাঁদপুর লঞ্চঘাট থেকে হামিদ ও তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রওয়ানা হন। পথিমধ্যে লঞ্চ থেকে ধাক্কা দিয়ে স্ত্রীকে নদীতে ফেলে দেন হামিদ। রাতেই বাড়িতে একা ফিরে এলে হামিদ বাড়ির লোকজনের প্রশ্নে মুখে পড়েন।  হামিদ প্রথমে জানান লঞ্চ ডুবে গেছে, আবার পরে জানান লঞ্চে আগুন লাগার কথা।
পরে বাড়ির লোকজনের চাপের মুখে স্বীকার করেন, স্ত্রীকে লঞ্চ থেকে ফেলে দিয়েছেন তিনি। এরপর জনতা তাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়।
সংবাদ পেয়ে হাজিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক আ. রাজ্জাক সেখানে গিয়ে হামিদকে আটক করে থানায় নিয়ে যান।
হাজীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহ আলম বলেন, নিখোঁজ মরিয়মকে উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হবে। ঘটনাটি তদন্ত করে হামিদ মোল্লার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/১৮অক্টোবর/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত