শেরপুরে টর্নেডোতে আদিবাসী পল্লী লণ্ডভণ্ড

শেরপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০২ এপ্রিল ২০১৭, ১৯:৩২

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে টর্নেডোর আঘাতে একটি আদিবাসী পল্লী লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে। টর্নেডোর আঘাত আদিবাসীদের ২৭টি ঘরবাড়ি ও সহস্রাধিক গাছপালা বিধ্বস্ত হয়।

শনিবার গভীর রাতে উপজেলায় সীমান্ত ঘেঁষা কাংশা ইউনিয়নের গারো পাহাড়ের ছোট গজনী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পরে আজ রবিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো.আমিনুল ইসলাম বাদশা এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এজেডএম শরীফ হোসেন।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানান, শনিবার রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের ছোট গজনী গ্রামে প্রবল বেগে টর্নেডো আঘাত হানে। পাঁচ থেকে সাত মিনিট স্থায়ী এ টর্নেডোর আঘাতে গ্রামটির নয়টি বাড়ি সম্পূর্ণরূপে ও ১৮টি বাড়ি আংশিক বিধ্বস্ত হয়। এছাড়াও সহস্রাধিক গাছপালা ভেঙে উপড়ে যায়। তবে এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি।

ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন- পলাশ সাংমা, জুলিয়া সাংমা, প্রফুল্ল মারাক, ওয়াশিংটন, প্রভাত মারাক, গাঙিনা সাংমা, চিরামনি মারাক, ডানেন সাংমা, ও সুনিতা সাংমা।

টর্নেডোর আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত ডানেন সাংমার স্ত্রী কল্পনা মারাক ঢাকাটাইমসকে বলেন, টর্নেডো আমাদের পুরো ঘরটি উড়িয়ে নিয়ে গেছে। এখন দুই ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে খোলা আকাশের নিচে আছি।

কাংশা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক ঢাকাটাইমসকে বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত অধিকাংশ পরিবারই খোলা আকাশের নিচে এখন বসবাস করছে। জরুরি ভিত্তিতে তাদের সরকারি সহায়তার প্রয়োজন।

সন্ধ্যায় যোগাযোগ করা হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এজেডএম শরীফ হোসেন ঢাকাটাইমসকে বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির কাজ চলছে। তালিকাটি জেলা প্রশাসনের কাছে পাঠানোর পর নিয়মানুযায়ী ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে।

(ঢাকাটাইমস/০২এপ্রিল/প্রতিনিধি/ ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত