মানিকগঞ্জে মঙ্গল শোভাযাত্রার প্রস্তুতি শেষ

মঞ্জুর রহমান, মানিকগঞ্জ
 | প্রকাশিত : ১৩ এপ্রিল ২০১৭, ১৮:২৪

সরকারি নির্দেশনার পর এবারই প্রথম প্রহেলা বৈশাখে মানিকগঞ্জে নববর্ষে হচ্ছে ‘মঙ্গল শোভাযাত্রা’। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারু শিল্পীদের তত্ত্বাবধানে এই শোভাযাত্রার প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। শিল্পকর্মে সজ্জিত এই শোভাযাত্রা নাচে গানে ও ঢোলের তালে তালে শহর প্রদক্ষিণ করবে। এই মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করেছে মানিকগঞ্জ পৌরসভা।

শুক্রবার সকাল আটটায় মানিকগঞ্জ পৌরসভার সামনে থেকে এই শোভাযাত্রার উদ্বোধন করা হবে। শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে এটি শেষ হবে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় খেলার মাঠে। সেখানে বৈশাখী আপ্যায়ন শেষে দিনব্যাপী গ্রামীণ লোক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকবে।

এই শোভাযাত্রায় প্রধান আকর্ষণ হিসেবে থাকছে হাতির প্রতিকৃতি। এছাড়া বাঘ, পেঁচা, মৈয়ূর, হাতপাখা ও মুখোশের প্রতিকৃতি রাখা হচ্ছে মঙ্গল শোভাযাত্রায়।

সুশাসনের জন্য নাগরিকের মানিকগঞ্জ জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক ইকবাল আহম্মেদ কচি ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘প্রয়লা বৈশাখ উপলক্ষে আমরা সব শ্রেণির মানুষের অংশগ্রহণে র‌্যালি করতাম। কিন্তু এবার ঢাকার অনুকরণে আমরা আনন্দলোকে মঙ্গল শোভাযাত্রা করবো।’

এই কাজে সার্বিক সহযোগিতাকারী বিমল রায় বলেন, “সারাদেশে জঙ্গিবাদ, অপসংস্কৃতিকে ‘না’ বলার জায়গা থেকেই মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে। এই শোভাযাত্রার মাধ্যমে জঙ্গিবাদকে ‘না’ বলা হবে। এই মঙ্গল শোভাযাত্রার মাধ্যমে বাঙালির প্রাণের সংস্কৃতি ফুটে উঠবে।”

মানিকগঞ্জে অনুষ্ঠিত মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্যোক্তাদের একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ বিভাগ থেকে মাস্টার্স করা খোরশেদ আলম ওরফে আলক। তিনি বলেন, আনন্দ উৎসব ও বর্ষবরণ করতে মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়েছে।
 
আলক বলেন, ‘আমরা ১৫ দিন আগে কার্যক্রম শুরু করেছি। এখন পযন্ত ৯০ ভাগ কাজ হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যে বাকি ১০ ভাগ কাজ শেষ হয়ে যাবে।’

পরিবেশবিদ ও সংস্কৃতি কর্মী দীপক কুমার ঘোষ বলেন, প্রয়লা বৈশাখে মঙ্গলবার্তা মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার জন্যই মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজন। তিনি বলেন, ‘বাঙালি জাতির প্রাণবৈচিত্র্য, আমাদের জীবন, সেই সমস্ত জীবনপ্রণালী প্রকৃতি প্রাণ বৈচিত্র্যকে সন্নিবেশিত করে মঙ্গল শোভাযাত্রায় তাকে প্রতীকীভাবে উপস্থাপন করবো।

দীপক কুমার ঘোষ বলেন, ‘এই শোভাযাত্রায় মঙ্গল প্রতীক থাকবে আবার অমঙ্গলের প্রতীকও থাকবে। বাঙালি জাতির জন্য যা কিছু অমঙ্গল তা শোভাযাত্রার মাধ্যমে আমরা দূর করবো, তার বিরুদ্ধে লড়াই করবো ঐক্যবদ্ধভাবে। আবার একই সাথে যা কিছু মঙ্গল তাকে বুকের ভেতর ধারণ করবো। এবং সেই মঙ্গলের প্রতীক চিহ্নকে বুকে মধ্যে ধারণ করে আমরা বাঙালির ঐতিহ্য, ধর্ম, বর্ণ সম্প্রদায়ের যে সম্প্রীতিকে তুলে ধরে দেশের মঙ্গল কামনা করে এগিয়ে যাব আগামী দিনের জন্য।’

মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র গাজী কামরুল হুদা সেলিম বলেন, ‘প্রয়লা বৈশাখ আমরা প্রতি বছর র‌্যালির আয়োজন করে থাকি। তবে এবার ঢাকার অনুকরণে ভিন্ন আকৃতিতে মঙ্গল শোভাযাত্রা আয়োজন করেছি।’

ঢাকাটাইমস/১৩এপ্রিল/প্রতিনিধি/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন ফিচার বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত