ছাত্রলীগের সভাপতি শোভন, সম্পাদক রাব্বানী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০১ আগস্ট ২০১৮, ১২:২৫ | প্রকাশিত : ৩১ জুলাই ২০১৮, ২৩:০৯

জাতীয় সম্মেলনের দেড় মাসেরও বেশি সময় পর ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভাতৃপ্রতীম সংগঠন ছাত্রলীগের নতুন কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়েছে। দুই বছরের জন্য কমিটিতে সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন রেজানুল হক চৌধুরী শোভন আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন গোলাম রাব্বানী।

মঙ্গলবার আওয়ামী লীগ সভাপতি ও ছাত্রলীগের সাংগঠনিক নেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে এই কমিটি ঘোষণা করেন ওবায়দুল কাদের।

শোভন সদ্য বিদায়ী কমিটির সদস্য এবং রাব্বানী ছিলেন শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদক। দুই জনই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ছাত্র।

শোভনের বাড়ি কুড়িগ্রাম এবং রাব্বানীর বাড়ি মাদারীপুর।

ঢাকাটাইমসকে শোভন তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘নেত্রী আমাকে যে দায়িত্ব দিয়েছেন, যে আস্থা রেখেছেন, তার প্রতিদান দেয়ার চেষ্টা করব।’

জাতীয় নির্বাচনের বছরে ছাত্রলীগের কমিটি ভোটে নয়, বাছাই করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অবশ্য গত গত ১১ মে ছাত্রলীগের জাতীয় সম্মেলনের প্রথম দিনে সমঝোতার মাধ্যমে কমিটি করার নির্দেশ দেন।

সভাপতি পদে ১১১ ও সাধারণ সম্পাদক পদের জন্যে ২১২ জন প্রার্থী মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন। এদের মধ্যে সমঝোতায় আসতে না পেরে পরদিন একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা শেখ হাসিনার কাছে পৌঁছে দেয় ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটি। এরপর ৪ জুলাই গণভবনে ডেকে নিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলেন শেখ হাসিনা।

সবশেষ ২৪ জুলাই আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির বৈঠকে শেখ হাসিনা বলেন, তিনি সময়ের স্বল্পতায় এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন না। তবে ছাত্রলীগের নেতৃত্ব বাছাই করতে গঠন করা নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বসে তিনি সিদ্ধান্ত নেবেন।

সংক্ষিপ্ত তালিকা আসার পর তাদের বিষয়ে আরেক দফা খোঁজ খবর নিয়ে  নেতৃত্ব বাছাই করা হয়েছে।

২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসর পর ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের আচরণ ও নানা ঘটনায় বারবার সমালোচনায় পড়তে হয়েছে। আর এবার জাতীয় সম্মেলনের আগে নতুন মডেলের ছাত্রলীগ দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন ওবায়দুল কাদের।

বিশেষ করে এবারের জাতীয় সম্মেলনের আগে বহুল আলোচিত অনুপ্রবেশ ঠেকানোর চেষ্টা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জানান, পদপ্রত্যাশীদের বিষয়ে খোঁজ খবর নেয়ার পাশাপাশি তাদের বংশের রাজনৈতিক বিশ্বাস ও কর্মকাণ্ডও যাচাই করা হয়েছে।

অন্য তিন কমিটি

কেন্দ্রীয় কমিটির পাশাপাশি ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা এবং ঢাকা উত্তর এবং দক্ষিণ শাখার কমিটি প্রধানেরও নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

                                                             সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাদ্দাম হোসাইন

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি করা হয়েছে সঞ্জিত চন্দ্র দাসকে। আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সাদ্দাম হোসাইন।

কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতোই এই কমিটির শীর্ষ নেতৃত্বও আইন বিভাগের ছাত্র।

সঞ্জিত জগন্নাথ হল সভাপতি ছিলেন। তার বাড়ি ময়মনসিংহে। আর সাদ্দাম ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী কেন্দ্রীয় কমিটিতে আইন বিষয়ক উপ সম্পাদক ছিলেন। তার বাড়ি সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে।

এছাড়া ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি করা হয়েছে মো. ইব্রাহিমকে। আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন সাইদুর রহমান হৃদয়।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখার সভাপতি করা হয়েছে মেহেদী হাসানকে। আর সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন জোবায়ের আহমেদ।

গুরুত্বপূর্ণ এই তিন কমিটির সম্মেলন কেন্দ্রীয় সম্মেলনের আগেই হয়েছে। তবে নতুন নেতৃত্বের নাম কেন্দ্রীয় কমিটির সঙ্গেই ঘোষণা করা হবে, সেটি আগেই জানানো হয়েছিল।

ঢাকাটাইমস/৩১জুলাই/টিএ/ডব্লিউবি

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :