ভারত থেকে আপাতত পেঁয়াজ আমদানি করবে না বাংলাদেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৯:৩০ | প্রকাশিত : ১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:৪০
ফাইল ছবি

ভারত থেকে আপাতত পেঁয়াজ আমদানির ইচ্ছা নেই বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেছেন, অনেক দেশ থেকেই পেঁয়াজ আমদানির সুযোগ আছে।

বৃহস্পতিবার সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শেষে বের হয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাণিজ্যমন্ত্রী একথা বলেন।

বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ বাংলাদেশকে কিনতে ভারতের প্রস্তাবের খবর গণমাধ্যমের আসার বাণিজ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য এল।

ভারতের প্রস্তাবের বিষয়ে জানতে চাইলে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, ‘আমরা এখনও অফিসিয়ালি কোনো প্রস্তাব পাইনি। প্রস্তাব পেলে বিচার-বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।’

ভারতীয় কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে ইংরেজি দৈনিক দ্য প্রিন্ট এক প্রতিবেদনে বলেছে, প্রতি টন ৫০ হাজার থেকে ৫৯ হাজার (৬০০ থেকে ৭০০ ডলার) টাকায় আমদানি করা পেঁয়াজ ভারত বাংলাদেশকে প্রতি টন ৫৫০ থেকে ৫৮০ ডলারে কিনে নেয়ার প্রস্তাব দিয়েছে।

দামের বিষয়টি নিয়ে এক প্রশ্নে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রাইস (দাম) কী সেটা ম্যাটার না। আমরা অফিসিয়ালি এরকম কোনো প্রোপোজাল (প্রস্তাব) পাইনি। তাছাড়া এটা আমাদের কনসিডারেশনের (বিবেচনা) নেই।’

টিপু মুনশি বলেন, ‘এই ধরনের প্রস্তাব এলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় হয়েই আসবে। আর প্রোপোজাল এলে দেখে বিবেচনা করবো, কী ধরনের প্রোপোজাল। কিন্তু আমরা তো এখন নিজেরাই সরাসরি আমদানি করছি। তারপরও যদি সুইটেবল হয় দেখা যাবে। বাট, এখন আমাদের এটা কনসিডারেশনে নেই।’

অভ্যন্তরীণ চাহিদা মেটাতে রপ্তানি নিষিদ্ধের পাশাপাশি ভারতকে পেঁয়াজ আমদানিও করতে হয়েছিল। তবে এখন বেশিরভাগ রাজ্যেরই চাহিদা না থাকায় আমদানির পেঁয়াজ নিয়ে বিপাকে পড়েছে দেশটি। আর এরইমধ্যে টেম্পার (গুনগত মান) চলে যাওয়া সেই পেঁয়াজ বাংলাদেশকে কিনতে  ভারতের কেন্দ্রীয় বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার রকিবুল হকের সঙ্গে এক বৈঠকে প্রস্তাব দেন বলে খবর এসেছে।

তবে দ্রুত পচনশীল পন্য হওয়ার কারণে ভারতের কেনা পেঁয়াজের গুনগত মান ইতোমধ্যে নষ্ট হয়ে গেছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। তাছাড়া ভারতের বেশি দামে কেনা সেই পেঁয়াজ বাংলাদেশের আমদানি করেও লাভ নেই।

(ঢাকাটাইমস/১৬জানুয়ারি/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :