শিখরে উঠলেও শেকড় ভোলেননি দীপিকা

বিনোদন ডেস্ক
| আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:২০ | প্রকাশিত : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২:১১

২০০৭ সালে শাহরুখ খান অভিনীত ‘ওম শান্তি ওম’ ছবিতে যারা দীপিকা পাডুকোনকে প্রথম দেখেছিলেন তাদের সবারই ধারণা, এই ছবিটি দিয়েই অভিনয়ে হাতেখড়ি হয়েছিল এক সময়কার ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় দীপিকার। কিন্তু তাদের ধারণা একেবারেই ভুল। সঠিক খবর হল, দীপিকার অভিনয় কেরিয়ার শুরু হয়েছিল ২০০৬ সালে কন্নড় ভাষার ছবি ‘ঐশ্বরিয়া’ দিয়ে। আর বলিউডে অভিষেক হয়েছিল ‘ওম শান্তি ওম’ দিয়ে।

সেই দীপিকা এখন বলিউডের সুপারস্টার নায়িকাদের অন্যতম। যেকোনো ছবি সাইন করতে তিনিই সবচেয়ে বেশি টাকা পেয়ে থাকেন। কেরিয়ারের এমন একটা জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকা নায়িকার হাতে আবার যদি সেই দক্ষিণী ভাষার কোনো ছবির প্রস্তাব আসে, তিনি কী তাতে সায় দেবেন? যেখান থেকে তিনি বলিউডের মতো একটা বড় ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছিলেন। সম্প্রতি একটা সাক্ষাৎকারে এমন প্রশ্নই করা হয়েছিল ‘পদ্মাবত’ তারকাকে।

এই প্রশ্নে দীপিকার সোজা সাপটা জবাব, ‘অবশ্যই করব। ভাষা আমার কেরিয়ারের ক্ষেত্রে কখনোই বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি। আমার মনে হয়, দিন শেষে অভিনয়শিল্পী হিসেবে আমি ভালো চিত্রনাট্যের খোঁজেই থাকি। সত্যি বলতে কী, এরই মধ্যে বেশ কয়েকজন দক্ষিণী পরিচালক এবং চিত্রনাট্যকার আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। তাদের সঙ্গে নানা বিষয় নিয়ে প্রাথমিক আলাপও হয়েছে। ভালো বিষয়বস্তু পেলে নিশ্চয়ই অভিনয় করব।’

এই জবাবই বলে দিচ্ছে, অভিনয় দিয়ে সাফল্যের সর্বোচ্চ শিখরে পৌঁছালেও শেকড় ভুলে যাননি নায়িকা। খ্যাতির দাপটে বদলেও যাননি। বলিউডে কিছুদিন আগে মুক্তি পায় দীপিকার ‘ছপাক’। এ ছবির সাফল্যের পর খুব শিগগিরই তাকে দেখা যাবে কবির খানের ‘৮৩’ ছবিতে স্বামী রণবীর সিংয়ের বিপরীতে। সেখানে রণবীর রয়েছেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার কপিল দেবের চরিত্রে এবং দীপিকা ধরা দেবেন তার স্ত্রী রোমির ভূমিকায়।

ঢাকাটাইমস/২৫ফেব্রুয়ারি/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বিনোদন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :