ত্রাণ পৌঁছাতে ইথিওপিয়ায় যুদ্ধবিরতি চায় জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ নভেম্বর ২০২০, ১৭:১২

বেসামরিক মানুষের কাছে ত্রাণ পৌঁছাতে অবিলম্বে ইথিওপিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় এলাকা টাইগ্রে বিদ্রোহীদের সঙ্গে সরকারি বাহিনীর চলা রক্তক্ষয়ী সংঘাত বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।

সংস্থাটি বলছে, ‘সুদানে পৌঁছানো শরণার্থীদের বড় অংশই শিশু। যারা ক্ষুধার্ত ও ভীত। অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করা গেলে এসব মানুষের কাছে জরুরি মানবিক ত্রাণ পৌঁছানো সম্ভব হবে না’।

প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে চলা এই যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছেন কয়েকশ বেসামরিক মানুষ। জীবন বাচাতে ঘরবাড়ি ছেড়ে পাশ্ববর্তী দেশ সুদানে পালিয়েছে অঞ্চলটির প্রায় ৩৩ হাজার মানুষ।

দীর্ঘদিন ধরে ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ স্বাধীনতাকামী অঞ্চল টাইগ্রেতে ব্যাপক রাজনৈতিক সংস্কারের নামে টাইগ্রেয়ানদের কোণঠাসা করেছেন। ফলে টাইগ্রে পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট পার্টির (টিপিএলএফ) সঙ্গে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকারের বিরোধ চরম আকার ধারণ করে।

জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা বলছে, টাইগ্রে অঞ্চলে সংঘাত অব্যাহত থাকলে আগামী ছয় মাসের মধ্যে দুই লাখ পর্যন্ত শরণার্থী সুদানে আশ্রয় নিতে পারে। সে লক্ষ্যে প্রস্তুতি শুরুর কথা জানিয়েছে সংস্থাটি।

তবে টাইগ্রে অঞ্চলের সংকট সমাধানে এখন পর্যন্ত আলোচনার আহ্বান প্রত্যাখ্যান করে আসছে ইথিওপিয়ার সরকার। এই সংকটকে নিরাপত্তা বাহিনীর অভ্যন্তরীণ বৈধ অভিযান বলে বিবেচনা করছে প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের সরকার।

ঢাকাটাইমস/২১ নভেম্বর/এনএইচএস/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :