পুঁজিবাজার বিষয়ক সিদ্ধান্তে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে পরামর্শ নেওয়ার দাবি

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৮:০০

দেশের পুঁজিবাজারের বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে গেলে আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) সঙ্গে পরামর্শ করার জন্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কাছে দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদ।

রবিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে এ দাবি জানিয়েছে পুঁজিবাজার সংশ্লিষ্ট বিনিয়োগকারীদের সংগঠনটি।

এ চিঠির অনুলিপি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, অর্থ মন্ত্রণালয়, প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা মহাপরিদপ্তর (ডিজিএফআই), জাতীয় নিরাপত্তা গোয়েন্দা (এনএসআই), বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি), ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ পুঁজিবাজার বিনিয়োগকারী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুর রাজ্জাক স্বাক্ষরিত চিঠিতে উল্লেখ করা হয়-দীর্ঘদিনের মন্দাভাব কাটিয়ে পুঁজিবাজার ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে শুরু করেছে। বর্তমান কমিশনের সুযোগ্য নেতৃত্ব, সকল অংশীজনের সহযোগিতার ফলে পুঁজিবাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থা তৈরি হয়েছে। দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগ পুঁজিবাজারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীরা তাদের হারানো পুঁজি ফিরে পেতে শুরু করেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুঁজিবাজারের উন্নয়নের জন্য ৬টি দিক-নির্দেশনা দিয়েছেন। বিদেশি বিনিয়োগকারী আকৃষ্ট করতে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ইতোপূর্বে বিএসইসি’র নেতৃত্বে দুবাই, আমেরিকা, সুইজারল্যান্ড ও ইংল্যান্ডে রোড শো অনুষ্ঠিত হয়েছে। পুঁজিবাজারে উপযুক্ত পরিবেশ থাকার কথা উল্লেখ করে রোড শো’তে বিদেশি বিনিয়োগকারীদেরকে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের জন্য আহ্বান জানিয়েছেন বিএসইসি’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলাম।

চিঠিতে আরো উল্লেখ করা হয়, তবে বাংলাদেশ ব্যাংকের কিছু কিছু দুর্বল মনিটরিং পলিসি ও অযাচিত হস্তক্ষেপ বর্তমানে পুঁজিবাজারকে পতনের ধারায় ত্বরান্বিত করছে। যেমন- ব্যাংক ও আর্থিক খাতের অবণ্টিত লভ্যাংশের টাকা মার্কেট স্টাবিলাইজেশন ফান্ডে জমা দিতে বাধা সৃষ্টি করা, বিএসইসিকে না জানিয়ে সংশ্লিষ্ট যে কোন প্রতিষ্ঠানের কাছে সরাসরি কোনো তথ্য বা উপাত্ত চাওয়া, পুঁজিবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ নিয়ে একের পর এক সমালোচিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা ইত্যাদি। পুঁজিবাজার যখনই একটু গতিশীলতা পায় তখনই বাংলাদেশ ব্যাংকের দুর্বল মনিটরিং পলিসি ও নতজানু সিদ্ধান্তের কারণে পুঁজিবাজারের গতিশীলতা হ্রাস পায়। এতে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা চরম ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে।

তাই পুঁজিবাজারের উন্নয়ন ও গতিশীলতার স্বার্থে বাংলাদেশ ব্যাংক পুঁজিবাজার বিষয়ক যে কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ, তথ্য ও উপাত্ত চাওয়া এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিনিয়োগ, লভ্যাংশ প্রদান ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের পূর্বে বিএসইসি বা সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে পরামর্শ করে নেওয়ার জোড় দাবি জানাচ্ছি। এতে পুঁজিবাজার আরো স্থিতিশীল হবে এবং সরকারের ভাবমূর্তি ও উজ্জ্বল হবে।

(ঢাকাটাইমস/২৮নভেম্বর/এসকেএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :