বিলাওয়ালকে মোমেনের আমন্ত্রণ, জানুন কেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৩ জুলাই ২০২২, ১০:২৮ | প্রকাশিত : ০৩ জুলাই ২০২২, ১০:২০

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারিকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আব্দুল মোমেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন। তারা জানান, ২৭ জুলাই ঢাকায় অনুষ্ঠেয় উন্নয়নশীল আট মুসলিম রাষ্ট্রের জোট ডি-৮ এর পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নিতে বিলাওয়ালকে বাংলাদেশ সফরের বিশেষ আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশ ডি-৮ এর বর্তমান সভাপতি হিসেবে জোটের সদস্য মিশর, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া এবং তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকেও যথাযথ মর্যাদায় আমন্ত্রণ জানাচ্ছে। সদস্য রাষ্ট্রগুলোতে থাকা বাংলাদেশের দূতকে সশরীরে আমন্ত্রিত অতিথিদের কাছে গিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর আমন্ত্রণপত্র হস্তান্তর করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টো এবং পরবর্তীতে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়া আসিফ আলী জারদারির ছেলে বিলাওয়াল ভুট্টো মুসলিম লীগ (নওয়াজ) ও পিপলস পার্টির সমন্বিত সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন গত এপ্রিলে।

২০১৮ সালে প্রথমবারের মতো পাকিস্তান পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হন বিলাওয়াল। এবারই তিনি সরকারে গুরুত্বপূর্ণ কোনো পদে নিয়োগ পান।

তবে আগে থেকেই বেনজির ভুট্টোর সেই পিপলস পার্টির নেতৃত্বে রয়েছেন তার সন্তান।

বিলাওয়াল ভুট্টো বরাবর পাঠানো আমন্ত্রণপত্রে পরাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল মোমেন লিখেছেন, ২৭ জুলাই ঢাকায় ডি-৮’র মন্ত্রী পর্যায়ের ২০তম অধিবেশনে আপনাকে আমন্ত্রণ জানাতে পেরে আমি সম্মানিত বোধ করছি। পঁচিশ বছর আগে আটটি মুসলিম উন্নয়নশীল দেশের নেতারা অভিন্ন লক্ষ্য ও আকাঙ্ক্ষা নিয়ে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য ডেভেলপিং-৮ প্রতিষ্ঠায় একটি ঐতিহাসিক চুক্তিতে উপনীত হয়েছিলেন। আমি যখন সংগঠনটির যাত্রার দিকে ফিরে তাকাই তখন দেখি সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা এবং অংশীদারিত্বকে কাজে লাগিয়ে আমরা অনেক যুগান্তকারী অর্জন সাধন করেছি। আমি এ জন্য সন্তুষ্ট। আশা করি, আগামী বছরগুলোতে ডি-৮ সদস্য রাষ্ট্রগুলো বিশ্ব অর্থনীতিতে আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। কারণ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ক্রমবর্ধমান অনিশ্চয়তা রয়েছে। বাংলাদেশ একটি গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ডি-৮ মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক আয়োজন করতে যাচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী মোমেন বলেন, এটি এমন একটি সময়, যখন আশাবাদের ধারণা নিয়ে আমরা বৈশ্বিক মহামারি কেভিড-১৯ এর পুনরুদ্ধারের পর্যায় প্রত্যক্ষ করছি। এটি আমাদের অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করার একটি সুযোগ। এর মধ্যদিয়ে আমরা আমাদের বিদ্যমান বাণিজ্য সম্পর্ক আরও জোরদার এবং শক্তিশালী করার প্রয়াস চালাতে পারি। মন্ত্রী পর্যায়ের ওই আলোচনা ঐতিহ্যগত এবং উদীয়মান উভয় ক্ষেত্রেই সদস্য দেশগুলোর জন্য একটি বিশেষ তাৎপর্য বহন করছে। এটি ডি-৮ প্রতিষ্ঠার রজতজয়ন্তীও বটে।

এ আয়োজনে আপনার দেশের প্রতিনিধিদল সাইডলাইনে বিশেষ ব্যবসায়িক এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে মিলিত হওয়ার সুযোগ পাবে, যা ডি-৮ এর ২৫তম প্রতিষ্ঠার স্মরণে আয়োজন করা হবে। আমি ঢাকায় ডি-৮ মন্ত্রী পর্যায়ের আসন্ন বৈঠকে আপনার সদয় অংশগ্রহণ কামনা করছি এবং আপনাকে স্বাগত জানানোর অপেক্ষায় আছি। সম্মিলিত প্রয়াস আমাদের অর্থনৈতিক সহযোগিতাকে আরও উন্নত করতে পারে এবং সংস্থাকে অনন্য নির্দেশনা প্রদান করে কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন আনতে পারে বলে আমি বিশ্বাস করি।

(ঢাকাটাইমস/০৩জুলাই/এমআইএ/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

সরকারি দপ্তরে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে আরও কিছু নির্দেশনা

বায়ু দূষণে ২০১৯ সালে ঢাকায় ২২ হাজার মানুষের মৃত্যু: বৈশ্বিক প্রতিবেদন

অস্থির বাজার, ব্যবসায়ীরা বলছেন তাদের কিছু করার নেই

ইতিহাস গড়ে দেশে ফিরলেন ওয়াসফিয়া, শোনালেন কে-টু পর্বত জয়ের গল্প

এক দিনে শনাক্ত ২১২, মৃত্যু নেই

দাম কমাতে প্রয়োজনে ডিম আমদানি, বাণিজ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন

প্রত্যাবাসন নিরাপদ না হলে রোহিঙ্গারা আবারও চলে আসবে: মিশেল ব্যাশলেট

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে কূটনৈতিক প্রচেষ্টা চলছে: কক্সবাজারে মিশেল ব্যাশলেট

নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক দাম, ব্যবসায়ীদের দুষছেন বাণিজ্যমন্ত্রী

ভোজ্যতেলের নতুন দাম নির্ধারণ শিগগিরই

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :