ক্রিটিসাইজ করতে পারেন, আই ডোন্ট মাইন্ড: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৪ আগস্ট ২০২২, ১৯:০৮ | প্রকাশিত : ১৪ আগস্ট ২০২২, ১৯:০২
ফাইল ছবি

‘বাংলাদেশের মানুষ অন্য দেশের তুলনায় বেহেশতে আছে’ বক্তব্যের পর সমালোচনার মুখে পড়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, তার এই ‘কথার কথা’ নিয়ে সাংবাদিকরা তাকে বিপাকে ফেলেছেন।

রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশ সফররত জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার মিশেল ব্যাশলেতের সঙ্গে বৈঠক শেষে রবিবার বিকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ‘বেহেশত’ প্রসঙ্গে কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমি তো ট্রু সেন্সে বেহেশত বলিনি। কথার কথা বলেছি। কিন্তু আপনারা সবাই আমারে খায়া ফেললেন।’

শুক্রবার সিলেটের এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বৈশ্বিক মন্দায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মুদ্রাস্ফীতির তুলনায় বাংলাদেশে অনেক কম। অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশের মানুষ সুখে আছেন, বেহেশতে আছেন। তবুও জিনিসপত্রের দাম যাতে আর না বাড়ে সেদিকে খেয়াল রাখছে সরকার।’

এমন বক্তব্যের পর সমালোচনার মধ্যে মন্ত্রী কোন প্রসঙ্গে বেহেশত বলেছেন শনিবার সিলেটের এক অনুষ্ঠান শেষে ব্যাখ্যাও দেন। তবে তাতেও সমালোচনা থামেনি। মন্ত্রীর এমন বক্তব্য জনগণের সঙ্গে তামাশা বলে মন্তব্য করেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রবিবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফের এ বিষয়ে কথা বলেন। একপ্রকার ব্যাখ্যার মতো করেই তিনি বলেন, ‘আমরা অনেকের চেয়ে ভালো আছি। বলতে পারেন বেহেশতে আছি। আর যায় কোথায়! সবাই আমারে এক্কেরে...।’

‘এই হলো বাংলাদেশের মিডিয়ার স্বাধীনতা...। আমি কি মিডিয়ার স্বাধীনতা খর্ব করেছি? আফটার অল আই অ্যাম আ পাবলিক ফিগার। নিশ্চয়ই আপনারা আমাকে ক্রিটিসাইজ করতে পারেন। আই ডোন্ট মাইন্ড। তবে আগামীতে সাবধান হইতে হবে’—যোগ করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এসময় নিজেকে খোলামেলা আর শিক্ষক মানুষ অভিহিত করে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘আমি যেটা মনে করি, সেটা খোলামেলা বলে ফেলি। আমার দল থেকে আমাকে ইয়ো করেছেন। পজিশনে থেকে ভালো কথা বলা দরকার।’

(ঢাকাটাইমস/১৪আগস্ট/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :