নির্বাচন ঘিরে অস্ত্রের ঝনঝনানির সুযোগ নেই, যশোরে উদ্ধার ছয় অস্ত্র: র‍্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০৩ অক্টোবর ২০২৩, ১৪:৩৪ | প্রকাশিত : ০৩ অক্টোবর ২০২৩, ১৪:১৮

আসন্ন জাতীয় নির্বাচন ঘিরে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা ও অস্ত্রের ঝনঝনানির সুযোগ নেই বলে জানিয়েছে র‌্যাব। গেল সপ্তাহে যশোর থেকে ছয়টি অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করেছে এ এলিট ফোর্স।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বাহিনীটির আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন একথা বলেন।

কমান্ডার মঈন বলেন, ‘র‍্যাবের ম্যান্ডেট হলো অস্ত্র, জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসী দমন। এটা শুধু নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কাজ করছে, তা নয়। আমরা যখনই তথ্য পাচ্ছি বা অবৈধ অস্ত্রবহন, ব্যবহারের তথ্য পেলে সেটা দেশের যে প্রান্তেই হোক আমরা কাজ করি। গত সপ্তাহে যশোর থেকে ছয়টা অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। সব মিলিয়ে আমরা শুধু নির্বাচনি সময় নয়, যেকোনো সময় হোক জড়িতদের আইনের আওতায় নিয়ে আসছি।’

‘তবে কিছু ব্যক্তি বা মহল মনে করে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জনসমর্থনের পাশাপাশি পেশিশক্তির প্রয়োজন তাদের রয়েছে। তারা কিন্তু এই ধরনের সন্ত্রাসীদের ব্যবহার করা বা সন্ত্রাসীদের মাধ্যমে অস্ত্রের ব্যবহারের চেষ্টা করে থাকতে পারে। তবে এ বিষয়ে আমাদের গোয়েন্দারা কাজ করছে।’

চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা জামিনে বের হচ্ছে, আমরা তথ্য পাই না:

আসন্ন নির্বাচনের আগে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের জামিনের তথ্যের বিষয়ে জানতে চাইলে মঈন বলেন, ‘চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা জামিনে বের হওয়ার তথ্য সরাসরি তথ্য আমরা পাই না, পাওয়ার কথাও না। সন্ত্রাসীরা কারাগার জামিনে বের হচ্ছে আদালতে কোর্ট দারোগা থাকে, অনেক ক্ষেত্রে কারাগার থেকে কারা কর্তৃপক্ষ বা কারা পুলিশের কাছ থেকে পুলিশ সদর দপ্তর পেয়ে থাকে।’

‘পাশাপাশি আমরা আমাদের গোয়েন্দাদের মাধ্যমে আসলেই বড় মাপের শীর্ষ সন্ত্রাসী ও যাদের বড় ধরনের অপরাধের ইতিহাস রয়েছে তাদের অবস্থান নজরদারিতে রাখা হচ্ছে। র‍্যাবের জনবল প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল। তাদের বিষয়ে কোনো তথ্য পেলে আমরা কাজ করছি। যেহেতু তারা আইনানুগ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে তারা জামিনে বের হয়ে আসছে।’

অনেক জঙ্গিও জামিনে বের হয়ে আসে উল্লেখ করে র‌্যাব মুখপাত্র বলেন, ‘এই তথ্যটা গোয়েন্দা সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিনিময় করা উচিত। তখন আমরা সবাই এটার বিরুদ্ধে সমন্বিতভাবে কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন আছে মনে করলে ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে। তবে আমরা নজরদারিতে রাখার চেষ্টা করি। জামিনে বের হয়ে এসে আবারও অপরাধ করছে কি না মনিটর করছি।’

সম্প্রতি ঢাকার আশুলিয়ায় দম্পতিসসহ তিনজন হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত সাগরের বিষয়ে কমান্ডার মঈন বলেন, ‘সে চিহ্নিত সন্ত্রাসী না বা শীর্ষ সন্ত্রাসীও না। তবে সাগর আমাদের জানিয়েছে একটি স্বার্থান্বেষী মহল তাকে ব্যবহার করার চেষ্টা করেছে।’

(ঢাকাটাইমস/০৩অক্টোবর/এসএস/ডিএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

যাত্রাবাড়ীর সংঘর্ষে তরুণ নিহত

রাতের আঁধারেও ঢাবিতে পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষ

শনির আখড়ায় বাবা ও শিশুসহ গুলিবিদ্ধ ৬, ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা

শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহ্বান পুলিশের

হানিফ ফ্লাইওভারের টোলপ্লাজায় আগুন, সংঘর্ষে রণক্ষেত্র শনির আখড়া

​​​​​​​ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যের বাসভবনে জরুরি বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রী

এপিসি-জলকামান নিয়ে রাজধানীতে শক্ত অবস্থানে পুলিশ

আহতদের ব্যারিকেড দিয়ে মারধর, ছবি তোলায় সাংবাদিককে পেটালো পুলিশ

পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করায় সাউন্ড গ্রেনেড-টিয়ারগ্যাস নিক্ষেপ: ডিএমপি

বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা শিক্ষার্থীদের

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :