রূপগঞ্জে মাদ্রাসাছাত্রের রহস্যময় মৃত্যু, গ্রেপ্তার ৩

অনলাইন ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:০৩

নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জে মাহিম (১৪) নামে অষ্টম শ্রেণির মাদ্রাসা শিক্ষার্থীর মৃত্যু নিয়ে এলাকায় ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে।

নিহতের পরিবারের দাবি, পরকীয়া প্রেমের জেরে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়।

পুলিশের বক্তব্য, শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে স্থানীয়রা এ ঘটনায় রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছে।

শনিবার রাতে উপজেলার কাজিরবাগ এলাকায় এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

নিহত মাহিম কাজিরবাগ এলাকার পাটকল শ্রমিক মন্নান মিয়ার ছেলে।

নিহতের পরিবারের অভিযোগে হাবিবুর, শাহানাজ ও সাব্বির হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ। 

নিহতের বোন নাসিমা জানান, গত এক বছর আগে পাশের রাজমিস্ত্রী হাবিবুর রহমানের স্ত্রী শাহনাজের সঙ্গে মাহিমের বড় ভাই কামাল হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরিবারের দৈন্যতা থাকায় শাহনাজ গোপনে পাশের আরেক যুবক সাব্বিরের সঙ্গে সম্পর্ক রাখে। কামালের সঙ্গে সম্পর্কের খবরে তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠে সাব্বির। এ ঘটনায় গত আট মাস আগে সাব্বির দলবল নিয়ে কামালের বাড়িতে হামলা চালায়। এরপর থেকে কামাল এলাকা ছেড়ে চলে যায়।

তিনি আরো জানান, তার ভাইয়ের সঙ্গে শাহনাজের যোগাযোগ করিয়ে দিত তার ছোট ভাই মাহিম। শনিবার বিকালে মাহিম মোবাইল নিয়ে বের হলে সাব্বিরের সামনে পড়ে। পরে সন্দেহ হলে তাকে নানাভাবে চাপ প্রয়োগ করে। একপর্যায়ে বেধড়ক পেটায় এবং মাহিমকে জীবনে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

নিহত শিক্ষার্থীর মা বেবী আক্তার বলেন, আমি রাতে কাজ থেকে ফিরে ঘরের দরজার বাইরে দিয়ে শিকল আটকানো ছিল। খুলে ভেতরে গিয়ে মাহিমের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাই। তিনি দাবি করেন, সাব্বির তার ছেলেকে মেরে ফেলেছে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল হক বলেন, প্রাথমিক ধারণায় বুঝা যাচ্ছে এটা আত্মহত্যা।

(ঢাকাটাইমস/২০জানুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :