চলন্ত বাসে আগুন, ঘুমের মধ্যেই পুড়ে ৯ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১৮ মে ২০২৪, ১৩:৩০ | প্রকাশিত : ১৮ মে ২০২৪, ১৩:২৫

ভারতের হরিয়ানায় এক্সপ্রেসওয়েতে একটি চলন্ত বাসে আগুন লেগে ঘুমের মধ্যেই পুড়ে মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। গুরুতর আহত হয়েছেন কমপক্ষে আরও ১২ জন। শুক্রবার গভীর রাতে হরিয়ানার কুণ্ডলী-মানেসর-পালওয়াল এক্সপ্রেসওয়েতে মর্মান্তিক এ ঘটনাটি ঘটেছে।

শনিবার পৃথক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি ও হিন্দুস্তান টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাসটি মথুরা-বৃন্দাবনের তীর্থ ভ্রমণ সেরে ফিরছিল। একই পরিবারের ৬০ জন সদস্য ছিলেন ওই বাসে। সকলেই পাঞ্জাবের বাসিন্দা। মাঝ রাতে হঠাতই বাসের পেছন দিকে আগুন ধরে যায়। সেই সময় যাত্রীরা সকলেই ঘুমাচ্ছিলেন। পেছন থেকে আসা এক মোটরবাইক চালক ওভারটেক করে বাসচালককে সতর্ক করেন। বাস দাঁড় করাতেই ছুটে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তারাই পানি দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। বাসের সামনের দিকে বসা যাত্রীদের উদ্ধার করা গেলেও পেছনের দিকে বসা যাত্রীদের রক্ষা করা যায়নি। কমপক্ষে ৯ যাত্রী অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান। আহত হয়েছেন আরও ১২ জন।

পুলিশ জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের বৃন্দাবন থেকে চণ্ডিগড়ে ফিরছিলেন পুণ্যার্থীরা। বাসে প্রায় ৬০ জন ছিলেন। তারা সকলেই পাঞ্জাবের হোশিয়ারপুর, লুধিয়ানা এবং চণ্ডিগড়ের বাসিন্দা। শুক্রবার রাত ২টা ৩০ মিনিট ধুলাওয়াত টোলপ্লাজার কাছে বাসে আগুন ধরে যায়।

নুহের পুলিশ সুপার নরেন্দর বিজরনিয়া জানিয়েছেন, বাসে আগুন লাগার খবর পাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় পুলিশ এবং দমকল বাহিনী। স্থানীয় বাসিন্দাদের সহায়তার এক ঘণ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এসে যায়। আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় ৯ জনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ১৩ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

এদিকে বাসে কীভাবে আগুন লাগল তা এখনো জানা যায়নি। তবে প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, শর্ট সার্কিট থেকেই কোনোভাবে বাসের পেছনে থাকা এসির মেশিনে আগুন লেগে যায়। সেখান থেকেই বাসে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

(ঢাকাটাইমস/১৮মে/এমআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :