বগুড়া উপ-নির্বাচন: মনোনয়ন জমা দিলেন যারা

বগুড়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ মে ২০১৯, ২৩:০০

বগুড়া-৬ আসনের উপ-নির্বাচনের আজ (বৃহস্পতিবার) ছিল মনোনয়নপত্র জমার শেষ দিন। সকাল ৯টা থেকে বিকাল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এই সময়ের মধ্যে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টিসহ আরো নয়জন প্রার্থী তাদের মনোনয়ন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কার্যালয়ে দাখিল করেন। প্রত্যেক প্রার্থীই তাদের সমর্থকদের সাথে নিয়ে ব্যাপক উৎসাহ নিয়ে মনোনয়ন দাখিল করে চলে যান।

এর মধ্যে আওয়ামী লীগ থেকে একক মনোনয়ন জমা দিয়েছেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক টি জামান নিকেতা। বিএনপি থেকে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াসহ পাঁচজনের নামে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা হলেও মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তিনজন। বেগম জিয়ার কাছ থেকে বার্তা পেয়েই ফরম জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করা হয়েছে বলে এর আগে জানা যায়। এছাড়া ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন তার মনোনয়ন জমা দেননি। বিএনপি থেকে যে তিনজন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন, তারা হলেন: সাবেক সংসদ সদস্য জেলা বিএনপির আহবায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা বগুড়া পৌর মেয়র মাহবুবর রহমান ও জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা।

এদিকে, জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও জেলা জাপার সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম ওমর, বাংলাদেশ কংগ্রেস দলের ড. মনসুর রহমান, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের মুফতি রফিকুল ইসলাম, স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠু, মো. মিনহাজ (স্বতন্ত্র) বগুড়ার এই আসনে উপনির্বাচনে অংশ নিতে আজ মনোনয়ন জমা দেন।

আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী টি জামান নিকেতা ঢাকা টাইমসকে জানান, আমরা মনোনয়নপত্র জমা দিলাম। বগুড়ার এই আসনটি কেন শূন্য, কেন এই উপনির্বাচন হতে যাচ্ছে এই প্রশ্ন নিয়েই আগামীতে আমি বগুড়াবাসীর কাছে যাব। যেহেতু বগুড়ার মানুষ একবার ভোট দিয়েছে ৩০ ডিসেম্বর, সেসময় বিপুল ভোটে জেতার পরেও জনগণের রায়কে অবজ্ঞা করে শপথ না নেয়ার কারণে এখানে আসনটি শূন্য হয়েছে এই কথাটি আমরা বগুড়ার মানুষকে বোঝাব। গত ৬ মাস বগুড়াবাসীর জন্য সংসদে কোন প্রতিনিধিত্ব করা হয়নি আগামীতে যেন বগুড়ার মানুষদের জন্য প্রতিনিধিত্ব করার কেউ থাকে এটাই তাদের বোঝানোর চেষ্টা করব এবং বগুড়ার উন্নয়নকে তরান্বিত করতে নৌকার বিকল্প নেই এটাই বগুড়াবাসীকে বোঝাব। তাই এই আসনের জনগণ সব ভুলে এবার নৌকায় ভোট দেবেন।

বিএনপি প্রার্থী জেলা বিএনপির আহবায়ক গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ ঢাকা টাইমসকে জানান, দলের মহাসচিব বিএনপির কৌশলের প্রেক্ষিতে শপথ নেননি। জনগণ আবারও বিএনপিকে ভোট দেবে এমনটাই প্রত্যাশা করেন। মনোনয়ন উত্তোলনের আগে স্কাইপে যখন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাথে কথা হয়, তখন বেগম জিয়ার বিষয়টি তিনি বলেননি। আমরাই যখন দাবি উঠাই চেয়ারপার্সনের মনোনয়নের বিষয় নিয়ে তখন তিনি বলেন, ঠিক আছে আপনাদের সন্তুষ্টির জন্য মনোনয়ন ওঠাতে পারেন। এ কারণেই বেগম জিয়ার মনোনয়ন উঠানো হয়েছিল।

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বগুড়ার এই আসন থেকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিপুল ভোটে বিজয়ী হন। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তিনি শপথ গ্রহণ না করায় এই আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। এরপর নির্বাচন কমিশন থেকে গত ৮ মে এই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। তফসিল অনুযায়ী এই উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার শেষ দিন ছিল আজ ২৩ মে। মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ২৭ মে। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৩ জুন আর ভোট হবে ২৪ জুন।

(ঢাকাটাইমস/২৩মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত