নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রি, সাত প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা দুই লাখ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৫ জুন ২০১৯, ১৯:২২ | প্রকাশিত : ১৫ জুন ২০১৯, ১৯:১৯

নিম্নমানের অভিযোগে সম্প্রতি নিষিদ্ধ হওয়া ২২টি পণ্য বাজারে বিক্রি ও অনুমোদনহীন পণ্য বিক্রির দায়ে সাতটি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই)।

শনিবার সংস্থাটির দুইজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পৃথক অভিযান পরিচালনা করে এই জরিমানা আদায় করেন। একই সাথে ওই সকল প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে বিএসটিআই।

বিএসটিআই জানায়, সকাল থেকে বিএসটিআই ঢাকা এর উদ্যোগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আমিমুল এহসান এর নেতৃত্বে একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজধানীর গুলশান এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় নিষিদ্ধ পণ্য বিক্রির দায়ে মালিবাগের গাজী স্টোর, ফকিরাপুল বাজার আবদুস সালাম সড়কের মায়ের দোয়া ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, শান্তিনগর বাজারের বড় ভাইয়া জেনারেল স্টোর, খিলগাঁও ১১৯ নং সিটি করপোরেশন মার্কেটের পারভিন ট্রেডার্স, ১২০ খিলগাঁও তালতলা বাজারের বাবুল স্টোরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের এবং প্রত্যেক প্রতিষ্ঠানকে ২৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

একই সময়ে অপর এক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাশিদা আক্তার মালিবাগ, মাতিঝিল, শান্তিনগর এবং খিলগাঁও এলাকায় নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

আমদানিকৃত চকলেট পণ্যে অবৈধভাবে মানচিহ্ন ব্যবহার করায় এসিআই লজিস্টিকস লিমিটেড (স্বপ্ন) গুলশাল-২ নম্বর শাখাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন অভিযান পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট। এছাড়া আমদানিকৃত স্প্যাগোটি এবং মধু বিএসটিআই ছাড়পত্র ছাড়াই বাজারজাত করায় গুলশান-১ নম্বর ডিএনসিসি মার্কেটের তারা জেনারেল স্টোরকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন আইন, ২০১৮ অনুযায়ী নিষিদ্ধ ঘোষিত পণ্য বিক্রয়, বিতরণের দায়ে জরিমানা করা হয়েছে বলে ঢাকা টাইমসকে জানান বিএসটিআই এর সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজুল হক।

তিনি জানান, নিষিদ্ধ ২২টি পণ্য বাজার থেকে তুলে নিতে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে নির্দেশনা দেওয়ার পাশাপাশি, খুচরা ও পাইকারি বিক্রেতাদেরও এসব পণ্য বিক্রি বন্ধের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

অনেক ব্যবসায়ীদের দাবি, নতুন করে ২২ টি পণ্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে তা তারা জানেন না। ব্যবসায়িদের এমন দাবির প্রেক্ষিতে প্রতিটি বাজারে একটি, দুটি করে দোকানকে জরিমানা করা হয়েছে বলে তিনি জানান। বলেন, ‘বাকিদের সতর্ক করা হয়েছে। একই সাথে মার্কেট মালিক ও পরিচালকদের আজকের মধ্যে বাজার থেকে পণ্যগুলো সরিয়ে নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।‘

এছাড়া নিষিদ্ধ এসব পণ্য বাজার থেকে সরিয়ে নিতে বিএসটিআই এর পক্ষ থেকে দেশব্যাপী অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির এই সহকারী পরিচালক।

অভিযানকালে নিষিদ্ধ ঘোষিত ফস্টার ক্লার্ক ব্রান্ডের সফট ড্রিংকস পাউডার, প্রাণ ব্যান্ডের ঘি, রাধুনী ব্রান্ডের ধনিয়ার গুড়া ও জিরার গুড়া, কনফিডেন্স ব্রান্ডের আয়োডিন যুক্ত লবণ এবং কুলসন ব্র্যান্ডের লাচ্ছা সেমাইয়ের বেশ কিছু প্যাকেটও জব্দ করা হয়েছে।

ঢাকাটাইমস/১৫জুন/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :