নাসিরনগরে পুলিশ হেফাজতে আসামি মৃত্যুর অভিযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
 | প্রকাশিত : ২৬ আগস্ট ২০১৯, ০৯:৪৯
ফাইল ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে পুলিশ হেফাজতে বাবুল মিয়া (৫৫) নামে এক আসামির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।নিহত বাবুল উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের কোয়ারপুর গ্রামের মৃত লাল খাঁর ছেলে।

তবে এ ব্যাপারে নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাজেদুর রহমান জানান, ‘বাবুলের নামে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ছিল। রবিবার দুপুরে উপজেলার পূর্বভাগ গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসার সময় তার বুকে ব্যথা শুরু হয়। তৎক্ষণাৎ তাকে উপজেলা কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া। এরপর থানায়  আনা হয়। সন্ধ্যায় আবারও তার বুকে ব্যথা শুরু হলে তাকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাবুলের মৃত্যু হয়।’  

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, রবিবার  দুপুরের দিকে কোয়ারপুর গ্রামের বাজারের একটি কাঠের দোকান থেকে বাবুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। কিন্তু বাবুলের নামে থানায় কোনো মামলা আছে কি না জানতে চাওয়া হলে পুলিশ কোনো গ্রেপ্তারি পরোয়ান দেখাতে পারেনি। উল্টো তাকে ছাড়ার জন্য ২০ হাজার টাকা দাবি করে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক শোয়েব শাহরিয়ার জানান, ‘প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে হৃদরোগের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে বাবুল মিয়ার মৃত্যু হতে পারে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে।’ 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বলেন, ‘গ্রেপ্তারিপরোয়ানা নিয়েই পুলিশ বাবুল মিয়াকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ হেফাজতে অসুস্থ অবস্থায় তার মৃত্যু হলেও ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত জানা যাবে। এছাড়া তাকে ছেড়ে দেয়ার জন্য পরিবারের কাছে পুলিশের টাকা চাওয়ার বিষয়টিও তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

ঢাকাটাইমস/২৬ আগস্ট/এএইচ

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :