অভিযানকে প্রশ্নবিদ্ধ করার অপপ্রয়াস দেখছি

শাবান মাহমুদ
 | প্রকাশিত : ০৭ অক্টোবর ২০১৯, ১৩:৪১

আমরা চলমান দুর্নীতিবিরোধী অভিযানকে স্বাগত জানাই। সত্যিকার অর্থে সমাজের দুর্নীতিবাজদের বিচার হোক, আমরা চাই। রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার এ উদ্যোগ যুগান্তকারী, ঐতিহাসিক। আমরা চলমান অভিযানকে বিভ্রান্ত ও প্রশ্নবিদ্ধ করারও এক ধরনের অপপ্রয়াস দেখছি। বিশেষ করে জাতির বিবেক হিসেবে পরিচিত সাংবাদিক সমাজকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে একটি প্রতিহিংসাপরায়ণ ও স্বার্থান্বেষী মহল ভুয়া ও অস্তিত্বহীন অনলাইন পোর্টাল থেকে এ ধরনের সংবাদ পরিবেশন করছে যা ভয়াবহ গুজবের শামিল।

একটি অনলাইন পোর্টাল যা লন্ডন থেকে প্রকাশিত এবং এই মুহূর্তে বিশেষভাবে আলোচিত, এই পোর্টালে প্রতিনিয়ত আমাদের সাংবাদিক নেতৃবৃন্দসহ সম্মানিত গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বদের টার্গেট করছে। আমি সেইসব সাংবাদিক নেতা ও টক শোর জনপ্রিয় নামগুলো এখানে উল্লেখ করে বিব্রত করতে চাই না। তবে যাদের নাম আসছে তারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। সহজেই অনুমেয় যারা এধরনের সংবাদ দিচ্ছে অদৃশ্যের সেই ইতরগুলো কারা?

আটক হওয়া যুবলীগ নেতার সঙ্গে পরিচয় এবং সম্পর্ক থাকার সঙ্গে ক্যাসিনোর দুর্নীতির সম্পর্ক কী? আওয়ামী লীগ বিট কভার করা ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার কমপক্ষে অর্ধশত সাংবাদিক ও ক্যামেরাম্যানের সঙ্গে সম্রাটের চমৎকার সম্পর্কের কথা কার অজানা? ক্রাইম রিপোর্টাদের সঙ্গেও ছিল তার সম্পর্ক। একজন পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে আমি বলতে পারি সাংবাদিকদের সঙ্গে সম্রাটের সম্পর্ক ছিল একান্তই সৌজন্য ও পেশাগত। আমি কয়েকজন ফটোসাংবাদিককে চিনি যারা যুবলীগের সব প্রকাশনার দায়িত্ব পালন করেছে, এদের মধ্যে দুইজন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কর্মরত। এই মহৎ কাজটিও কী এখন প্রশ্নবিদ্ধ, নিশ্চয়ই না।

সাংবাদিকদের নিয়ে যতই গল্প বানানো হোক, এখনো একজন সাংবাদিকের চিকিৎসার জন্য অপেক্ষা করতে হয় কখন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের ফান্ড আসবে। কোন কোন সাংবাদিক সামাজিকভাবে মর্যাদার সঙ্গে বেঁচে থাকার সংগ্রামে পরাজিত। অবশ্য সবার ক্ষেত্রে এমন নয়। কেউ কেউ স্বচ্ছল ভালো আছেন। তারপরও বলবো যদি সাংবাদিক অস্বাভাবিক সম্পদের মালিক হয়ে থাকেন, দুর্নীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত, ক্যাসিনো কানেকশনে প্রমাণিত তাকেও আইনের আওতায় আনা হোক। আমরা সমর্থন জানাবো। কারণ সাংবাদিকরা রাষ্ট্রের নাগরিক হিসেবে আইনের ঊর্ধ্বে নন। পাশাপাশি যারা উদ্দেশ্যমূলকভাবে সাংবাদিক সমাজের চরিত্র হননের চেষ্টা করছে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনার জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি।অন্যথায় এই অভিযান পথ হারাতে পারে।

লেখক: মহাসচিব, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

নির্বাচিত খবর বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :