দুই বছরে উবারে সাড়ে চারশ ধর্ষণ

ঢাকাটাইমস ডেস্ক
 | প্রকাশিত : ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৭:৫৮
ফাইল ছবি

মার্কিন মুলুকে উবার কতটা নিরাপদ? এই প্রশ্নটা উঠেছে উবার তাদের প্রথম সুরক্ষা রিপোর্ট প্রকাশের পর। রিপোর্ট বলছে, অ্যামেরিকায় ২০১৭ ও ২০১৮ এই দুই বছরে সাড়ে চারশ ধর্ষণ ও প্রায় ছয় হাজার যৌন নিগ্রহের ঘটনা ঘটেছে।

আমেরিকায় এই সংস্থার গাড়ি প্রতিদিন প্রায় ৪০ লাখ বার ট্রিপ দেয়। উবার জানিয়েছে, 'এই সুরক্ষা রিপোর্ট জানার পুরো অধিকার সাধারণ লোকের আছে। কারণ, তারা প্রতিদিন আমাদের ওপর ভরসা করেন।' অবশ্যএই প্রথম সংস্থাটি তাদের সুরক্ষা রিপোর্ট প্রকাশ করল। সেটাও অবশ্য তাদের করতে হয়েছে চাপে পড়ে। কারণ, তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী সংস্থাগুলি বারবার এই রিপোর্ট প্রকাশের দাবি জানাচ্ছিল। উবারে চেপে নিগ্রহের মুখে পড়া যাত্রীদের নালিশের সংখ্যাও বাড়ছিল।

উবারের রিপোর্ট বলছে, ২০১৭-তে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ ছিল ২৯৩৬টি, পরের বছর তা বেড়ে হয়েছে ৩০৬৫। তা সত্ত্বেও উবার দাবি করছে, জাতীয় ক্ষেত্রে যৌন নিগ্রহের হার বেড়েছে ১৬ শতাংশ হারে, তাঁদের ক্ষেত্রে সেই বৃদ্ধির হার কম।

সংস্থার রিপোর্টে যৌন নিগ্রহকে পাঁচ ভাগে ভাগ করা হয়েছে, তার মধ্যে বিনা সম্মতিতে চুম্বন থেকে শুরু করে ধর্ষণ পর্যন্ত সবকিছুই আছে। দুবছরে ধর্ষণের ঘটনার অভিযোগ এসছে ৪৬৪ টি এবং ধর্যণের চেষ্টার অভিযোগ ছিল ৫৮৭টি। আর প্রাণঘাতী শারীরিক নিগ্রহ হয়েছে ১৮ বার। পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক।

মোট ৭০টি দেশে গাড়ি পরিষেবা চালায়। শুধু আমেরিকা নয়, বিভিন্ন দেশ থেকেই যৌন নির্যাতনের অভিযোগ এসেছে। ২০১৭ সাল থেকে তারা 'ইন অ্যাপ এমার্জেন্সি বাটন' চালু করেছে। ভারতে তো উবারের গাড়িতে লিখিতভাবে দেওয়া থাকে যে, ড্রাইভার মহিলাদের সম্মানরক্ষার শপথ নিয়েছে। ড্রাইভারদের পরিচিতিও ভালো করে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। -ডয়চে ভেলে

(ঢাকাটাইমস/০৬ডিসেম্বর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :