মাউথওয়াশ দিয়ে গার্গল করলে করোনা মরে!

স্বাস্থ্য ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ অক্টোবর ২০২০, ১৫:৫৪

করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াইটা খুব সহজ নয়। বিভিন্ন পরীক্ষায় বিজ্ঞানীরা দেখেছেন অ্যালকোহলের সংস্পর্শে এলে ভাইরাসটি পুরোপুরি ধ্বংস হয়। আবার ৯২ ডিগ্রিতে ১৫ মিনিট রাখার পর ভাইরাসটি মারা যায়। যেহেতু করোনার কোনও ওষুধ বা স্বীকৃত টিকা এখনও বের হয়নি কিন্তু গবেষণা চলছে বিশ্বজুড়ে।

বর্তমানে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, তারা দেখেছেন, কয়েকটি ওরাল অ্যান্টিসেপটিক ও মাউথওয়াশের করোনা জীবাণু অকেজো করে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে। এসব মাউথওয়াশ দিয়ে নিয়মিত গার্গল করে হয়তো করোনা হবে না।

জার্নাল অব মেডিক্যাল ভাইরোলজিতে বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ওরাল অ্যান্টিসেপটিক ও মাউথওয়াশ দিয়ে গার্গল করলে করোনা সংক্রমণের পর জীবাণুর পরিমাণ কমিয়ে দিতে পারে। ফলে সম্ভবত করোনা ছড়িয়ে পড়া রোধ করা যায়।

আমেরিকার পেন স্টেট ইউনিভার্সিটির গবেষক ক্রেগ মেয়ার্স বলেছেন, যতদিন না করোনা টিকা তৈরি হচ্ছে, সংক্রমণ রোখার কোনও উপায় চাই। যে জিনিসগুলোর ওপর আমরা পরীক্ষা করেছি, সেগুলো সহজলভ্য, মানুষ প্রতিদিন ব্যবহার করেন। গবেষণায় বেশ কয়েকটি মাউথওয়াশ ও নাকের ড্রপ ব্যবহার করেছেন তারা, দেখেছেন, করোনা জীবাণু নিষ্ক্রিয় করতে তারা কতটা সক্রিয় ভূমিকা নিতে পারে। ব্যবহার করা হয় বেবি শ্যাম্পু, পারক্সাইড সোরমাউথ ক্লিনজার ও মাউথওয়াশের ১ শতাংশ সলিউশন।

গবেষণায় দেখা যায়, এমন বেশ কয়েকটি মিশ্রণের করোনাভাইরাস নিষ্ক্রিয় করার পুরোদস্তুর ক্ষমতা রয়েছে, অর্থাৎ এগুলো নিয়মিত ব্যবহার করলে করোনা জীবাণু আর বিশেষ ছড়িয়ে পড়তে পারবে না। এই সব মিশ্রণের সংস্পর্শে করোনা সংক্রমিত মানবদেহের কোষ কয়েকদিন রেখে দেন তারা। দেখা যায়, বেবি শ্যাম্পু মিশ্রণের ১ শতাংশ ৯৯.৯ শতাংশের বেশি করোনা জীবাণুকে ২ মিনিটের মধ্যে নিষ্ক্রিয় করতে সক্ষম।

একইভাবে বেশ কয়েকটি মাউথওয়াশ ও গার্গলের মিশ্রণ করোনা নিষ্ক্রিয় করতে পারে। ৯৯.৯ শতাংশের বেশি ভাইরাস এই মিশ্রণগুলোর বেশিরভাগই মাত্র ৩০ সেকেন্ডের আগে পরে অকেজো করে দিয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২১ অক্টোবর/আরজেড/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :