ঢাকা নদীবন্দর থেকে আরিফ উদ্দিনকে বদলি

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৬:০৭

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) যুগ্ম পরিচালক ও ঢাকা নদীবন্দরের নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা এ কে এম আরিফ উদ্দিনকে সদরঘাট থেকে সংস্থাটির মতিঝিল প্রধান কার্যালয়ে বদলি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান গোলাম সাদেক ঢাকাটাইমসকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আরিফ উদ্দিনসহ সংস্থাটির বেশ কয়েকজন কর্মকর্তাকে একযোগে বদলি করা হয়েছে। যদিও বদলির চিঠি এখনো ইস্যু করা হয়নি।

বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান গোলাম সাদেক ঢাকা টাইমসকে বলেন, আমাদের বন্দর কর্মকর্তা প্রায়ই পরিবর্তন করা হয়। নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় আমরা কাজ করি। যে বদলির কথা বলা হচ্ছে, তাতে আরিফ উদ্দিনসহ আরও বেশ কয়েকজন রয়েছেন। সরকারি চাকরিতে বদলি একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া।

নদী রক্ষায় ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারি ঢাকা নদীবন্দর অঞ্চলের চার নদীর অবৈধ দখলমুক্ত করতে অভিযান শুরু করে বিআইডব্লিউটিএ। বুড়িগঙ্গা নদীর খোলামুড়া ঘাট এলাকা থেকে শুরু হয়ে অভিযান চলে বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, বালু ও শীতলক্ষ্যা নদীর তীরভূমিতে।

২০২০ সালের ৪ মার্চ পর্যন্ত ৬৮ দিনের অভিযানে ছয় হাজার ৩৮৭টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ এবং তীরভূমির ১৬৪ দশমিক ২৫ একের জায়গা উদ্ধার হয়।

২০১৯ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি আমিন মোমেন হাউজিং নামের একটি প্রতিষ্ঠানের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদকালে হঠাৎ ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে নেয়া হয়েছিল আরিফ উদ্দিনকে। যদিও পরবর্তী দিন তিনি আবার একই জায়গায় উচ্ছেদের নেতৃত্ব দেন।

এ অভিযানে ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিম, ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক, দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজলসহ অনেক প্রভাবশালীর অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। বলা হয়, এই অভিযানে বেশ সাহসিকতার সঙ্গে নিজের দায়িত্ব পালন করেন ঢাকা নদীবন্দরের নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা এ কে এম আরিফ উদ্দিন।

উচ্ছেদের পর তীরভূমি রক্ষায় শত বছরের গ্যারান্টিযুক্ত সীমানা খুঁটি বসছে ঢাকাকে ঘিরে থাকা চার নদীর তীরভূমিতে। পাশাপাশি তীরভূমিকে ঢাকাবাসীর জন্য বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তুলতে প্রায় সাড়ে আটশো কোটি টাকার একটি প্রকল্প বর্তমানে চলমান।

ঢাকা নদীবন্দরকে কেন্দ্র করে চলমান প্রকল্প বন্ধ এবং দখলদারদের চাপের মুখে এই কর্মকর্তাকে বদলি করা হলো কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে সংস্থাটির চেয়ারম্যান বলেন, আমার ওপর আস্থা নাই? আমাকে কি দুর্বল মনে করছেন? আমি কি এক আরিফ উদ্দিনকে দিয়ে কাজ করি? আমি নিজেই কাজ করি। বিআইডব্লিউটিএ কারো ওপর নির্ভর করে না। বিআইডব্লিউটিএ সংস্থা হিসেবে কাজ করে।

(ঢাকাটাইমস/৩০অক্টোবর/কারই/কেআর/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

প্রশাসন বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :