ব্রাহ্মণবাড়িয়া তাণ্ডব: ৪৮ মামলায় আসামি ৩৫ হাজার, গ্রেপ্তার ৫৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ০৯ এপ্রিল ২০২১, ২০:৩০ | প্রকাশিত : ০৯ এপ্রিল ২০২১, ১৯:৫৯
হেফাজতে ইসলামের আন্দোলনকে ঘিরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তিন দিন ধরে চলে তাণ্ডব

হেফাজতে ইসলামের নরেন্দ্র মোদিবিরোধী আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চলা তাণ্ডবের ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট ৪৮টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলায় এজাহারভুক্ত ২৮৮ জনসহ অজ্ঞাতনামা আরও ৩৫ হাজার মানুষকে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে গত ১৪ দিনে গ্রেপ্তার করা হয়েছে মাত্র ৫৫ জনকে।

শুক্রবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পুলিশের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা পুলিশের বিশেষ শাখার ডিআইও-১ পরিদর্শক ইমতিয়াজ আহমেদ।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের সহিংসতার ঘটনায় মোট ৪৮টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানায় ৪৩টি, আশুগঞ্জ থানায় তিনটি ও সরাইল থানায় দুটি। এসব মামলায় এজাহারনামীয় ২৮৮ জনসহ অজ্ঞাতনামা ৩৫ হাজার লোককে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ৫৫ জনকে।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) রইছ উদ্দিন বলেন, ‘স্থিরচিত্র ও ভিডিও ফুটেজ বিশ্লেষণ করে এসব আসামিকে শনাক্ত করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত আসামিদের ধরতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তাদের অনেকেই এখন পলাতক। ভিডিও ফুটেজগুলো দেখে অজ্ঞাতনামা আসামিদের শনাক্ত করার চেষ্টা করছি। আসামিদের ধরতে আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।’

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতায় আন্দোলনে নামে হেফাজতে ইসলাম। ২৮ মার্চ দেশজুড়ে হরতাল পালন করে সংগঠনটি। এর অংশ হিসেবে গত ২৬ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপারের কার্যালয়, ২নং পুলিশ ফাঁড়ি ও খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানাসহ অর্ধশতাধিক সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়। এ ঘটনায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতে ইসলামের বেশ কয়েকজন কর্মী-সমর্থক নিহত হন। সংঘর্ষে পুলিশসহ কয়েকশ মানুষ আহত হন।

কয়েক দিন ধরে চলা এই তাণ্ডবের জন্য পুলিশ হেফাজতে ইসলামের কর্মী-সমর্থকদের দায়ী করছে পুলিশ। যদিও আলোচিত সংগঠনটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, পুলিশের উসকানিতে এই ঘটনা ঘটেছে।

(ঢাকাটাইমস/০৯এপ্রিল/জেবি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :