ময়মনসিংহে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে সাংবাদিকের পা কেটে নেয়ার হুমকি

ময়মনসিংহ ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১১ আগস্ট ২০২২, ২০:৩৬

‘গৌরীপুরে হাতুড়ি পেটায় হাঁটু ভাঙল ছাত্রলীগ নেতার’ শিরোনামে গত ২৭ মার্চ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের জের ধরে ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সাংবাদিক মশিউর রহমান কাউসারকে (৩৮) পা কেটে নেয়ার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলামের (৩৭) বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। তিনি পৌরসভার মধ্য ভালুকা এলাকার মৃত ময়েজ উদ্দিনের ছেলে।

বুধবার রাতে এ ঘটনায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ভুক্তভোগী সাংবাদিক গৌরীপুর থানায় জিডি করেছেন। এর আগে ওই দিন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গৌরীপুর রেলস্টেশন এলাকায় এই হুমকি দেন মঞ্জুরুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার বিকালে গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান আব্দুল হালিম সিদ্দিকী এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় সাধারণ ডায়েরি হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সাংবাদিক কাউসার বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তান। তিনি দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার গৌরীপুর প্রতিনিধি এবং গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব।

মশিউর রহমান কাউসার জানান, চলতি বছরের স্বাধীনতা দিবসে পতাকা মিছিলের প্রস্তুতিকালে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক স্কুলশিক্ষক ইমতিয়াজ সুলতান জনির ওপর যুবলীগ কর্মী মঞ্জুরুলের নেতৃত্বে হামলার ঘটনা ঘটে। এসময় কুপিয়ে ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জনির একটি পা ভেঙে দেয়া হয়।

এ ঘটনায় গত ২৭ মার্চ দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকায় ‘গৌরীপুরে হাতুড়ি পেটায় হাঁটু ভাঙল ছাত্রলীগ নেতার’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মঞ্জুরুল ইসলাম ওই সাংবাদিককে নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। সর্বশেষ গত ১০ আগস্ট সাংবাদিক কাউসার গৌরীপুর রেলস্টেশন এলাকায় তার ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে বসেছিলেন। এ সময় মঞ্জুরুল ইসলাম তার সহযোগী সিদ্দিক মিয়াকে (৪৫) সাথে নিয়ে গিয়ে উত্তেজিত অবস্থায় সাংবাদিক কাউসারকে গালিগালাজ শুরু করেন।

এক পর্যায়ে সাংবাদিক কাউসারকে পা কেটে নেয়ার হুমকি দিয়ে মঞ্জুরুল বলেন- ‘তুই বড় সাংবাদিক হইয়া গেছস; তোর লাইগ্যা আমি মামলায় ফাঁসছি। এতে আমার ৯০ হাজার টেহা খরচ হইছে। তোর পা কাইট্যা নিয়া যাইয়াম।’ তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি মঞ্জুরুল ইসলাম। তিনি দাবি করেন, তাদের সাথে আমাদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে। বিষয়টি আপাদত মীমাংসা হলেও ওই বিরোধপূর্ণ জমি থেকে একটি বাঁশ বাগান বিক্রি করা হয়েছে আমাদের না জানিয়ে।

বিষয়টি নিয়ে আমি তার (সাংবাদিকের) সাথে কথা বলেছি। এখানে তাকে হুমকি দেওয়ার কোন ঘটনা ঘটেনি।

(ঢাকাটাইমস/১১আগস্ট/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :