পশ্চিম তীরে ফের সহিংসতা, ফিলিস্তিনিকে হত্যা ইসরায়েলি সেনার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০২ এপ্রিল ২০২৩, ১৫:৩৭

জেরুজালেমের আল-আকসা কম্পাউন্ডে একজন মেডিক্যাল ছাত্রকে পুলিশ হত্যার কয়েক ঘণ্টা পর শনিবার অধিকৃত পশ্চিম তীরে আরেকজন ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করেছে ইসরায়েলি সেনা।

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, শনিবার পশ্চিম তীরে নিহত ব্যক্তির নাম মোহাম্মদ রা’দ বারাদিয়াহ (২৪)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা ফিলিস্তিনি ওয়াফা নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন, বারাদিয়াহকে বেইত উমমার শহরের কাছে তার গাড়িতে গুলি করা হয়েছিল এবং আহত অবস্থায় তার সঙ্গে চিকিত্সকদের প্রবেশাধিকারে বাধা দেওয়া হয়েছিল।

সংস্থাটি জানিয়েছে, ‘মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত বরাদিয়াহর ক্ষত থেকে অসহায়ভাবে রক্ত ঝরছিল।’

ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, বারাদিয়াহ তার গাড়ি দিয়ে একদল সেনাদের ধাক্কা দেওয়ার পর তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। ইসরায়েলি চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তিনজন আহত হয়েছেন, যাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর।

এর আগে শনিবার ইসরায়েলি পুলিশ বলেছিল, তারা অধিকৃত পূর্ব জেরুজালেমের আল-আকসা মসজিদ প্রাঙ্গণের একটি অ্যাক্সেস পয়েন্ট চেইন গেটে আরেক ফিলিস্তিনি ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে। ঘটনাস্থলের প্রবেশপথে ফিলিস্তিনি উপাসকরা বলেছেন ২৬ বছর বয়সী মোহাম্মদ খালেদ আল-ওসাইবি পবিত্র প্রাঙ্গণে যাওয়ার পথে একজন মহিলাকে পুলিশি হয়রানি থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করছিল। এরপর পুলিশ কমপক্ষে তাকে ১০ রাউন্ড গুলি করে।

পুলিশ অবশ্য অভিযোগ করেছে, আল-ওসাইবি একজন অফিসারের কাছ থেকে বন্দুক নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন এবং সে সংঘর্ষে গুলি চালায়।

আল-ওসাইবির পরিবার তার মৃত্যুর বিষয়ে পুলিশের অ্যাকাউন্টের বিরোধিতা করেছে এবং নিরাপত্তা ক্যামেরার ফুটেজ দেখার দাবি জানিয়েছে।

তার চাচাতো ভাই ফাহাদ আল-ওসাইবি বলেছেন, ‘তিনি একজন ডাক্তার পরিবারের একজন ভদ্র, দয়ালু ব্যক্তি যিনি ধর্মীয় কারণে আল-আকসায় যাচ্ছিলেন। আপনি যদি আমাদের বিশ্বাস করতে চান যে তিনি পুলিশকে আক্রমণ করার চেষ্টা করেছিলেন, তাহলে আমাদের নিরাপত্তা ফুটেজ দেখান।’

আল-ওসাইবির পরিবার বলেছে, তিনি একজন চিকিত্সক যিনি সম্প্রতি তার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন এবং রোমানিয়া থেকে মেডিক্যাল ডিগ্রি অর্জন করেছেন। তার চাচাতো ভাই বলেন, তিনি এক মাস আগে তার নিজ শহরে ফিরে আসেন এবং ইসরায়েলে প্রত্যয়িত হওয়ার জন্য কাজ করার সময় তার অসুস্থ বাবার যত্ন নিচ্ছিলেন।

ইসলামের তৃতীয় পবিত্র স্থান আল-আকসা মসজিদ কমপ্লেক্সের প্রান্তে জেরুজালেমের ঘটনাটি পবিত্র রমজান মাসে মুসলমানদের উপস্থিতির উচ্চ পর্যায়ে এসেছিল। কম্পাউন্ডকে ইহুদিরা টেম্পল মাউন্ট বলে ডাকে। জায়গাটি ইহুদি ধর্মেরও সবচেয়ে পবিত্র স্থান।

জেরুজালেম এবং পশ্চিম তীরের এলাকায় কয়েক মাস সহিংসতার পর উত্তেজনা বৃদ্ধির পটভূমিতেও গুলি চালানো হয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মতে, বছরের শুরু থেকে ইসরায়েলি বাহিনী কমপক্ষে ৯২ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করেছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, একই সময়ে ফিলিস্তিনি হামলাকারীরা ইসরায়েলে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য, বেসামরিক নাগরিক এবং একজন ইউক্রেনের নাগরিক সহ প্রায় ১৪ জনকে হত্যা করেছে।

(ঢাকাটাইমস/২এপ্রিল/এসএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :