বাজেট ২০২৩-২৪

এবারও প্রাথমিকে ‘স্কুল ফিডিং কার্যক্রম’ অব্যাহত থাকছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ০১ জুন ২০২৩, ১৭:৪০ | প্রকাশিত : ০১ জুন ২০২৩, ১৭:০০

এবারও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ‘স্কুল ফিডিং কার্যক্রম’ অব্যাহত থাকছে। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ ঘোষণা দেন।

প্রস্তাবিত বাজেটে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৩৪ হাজার ৭২২ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরে ৩১ হাজার ৭৬১ কোটি টাকা বরাদ্দ ছিল । যা গত বাজেটের চেয়ে ২ হাজার ৯৬১ কোটি টাকা বেশি।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রাথমিক শিক্ষার ক্ষেত্রে আমরা চলমান কার্যক্রম, বিশেষ করে-অবকাঠামো উন্নয়ন, সম্প্রসারণ, মেরামত ও সংস্কার, উপবৃত্তি, পাঠ্যপুস্তকসহ অন্যান্য শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, শিক্ষক নিয়োগ ও প্রশিক্ষণ ডিজিটালাইজেশন, স্কুল ফিডিং ইত্যাদি কার্যক্রম অব্যাহত রাখব।’

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের পুষ্টিঘাটতি পূরণ, বিদ্যালয়ে শতভাগ ভর্তি, নিয়মিত বিদ্যালয়ে উপস্থিতি ও ঝরে পড়া রোধেই ২০১০ সালে চালু হয় স্কুল ফিডিং প্রকল্প। যা ২০২২ সালের জুন মাসে শেষ হয়। প্রকল্পটি দেশের ১০৪টি উপজেলায় চালু ছিল।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বিকালে জাতীয় সংসদে ২০২৩-২৪ অর্থবছরের বাজেট সংসদে উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী।

এর আগে মন্ত্রিসভা বৈঠকে অনুমোদনের পর বাজেট প্রস্তাবে সই করেন রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন। এবারের বাজেট বক্তব্যের শিরোনাম ‘উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় দেড় দশক পেরিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশের অভিমুখে।’

বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, মুদ্রাস্ফীতির কারণে করদাতাগণের প্রকৃত আয় হ্রাস পেয়েছে বলে কোম্পানি ও স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ব্যতীত অন্যান্য শ্রেণির করদাতা, বিশেষ করে স্বাভাবিক ব্যক্তিশ্রেণির করদাতাগণের করমুক্ত আয়সীমা কিছুটা বাড়ানোর প্রস্তাব করছি।

এতে ব্যক্তি করদাতাদের করভার লাঘব হবে বলে তারা নিয়মিতভাবে কর পরিশোধে উৎসাহিত হবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। একই সঙ্গে সর্বনিম্ন করহার ৫ শতাংশ এবং সর্বোচ্চ করহার ২৫ শতাংশে নির্ধারণের প্রস্তাব করেন অর্থমন্ত্রী।

সেই প্রস্তাব অনুযায়ী, বছরে সাড়ে তিন লাখ টাকার বেশি আয় হলে ব্যক্তি শ্রেণির করদাতাদের পরবর্তী ১ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ে কর দিতে হবে ৫ শতাংশ হারে। তার তার পরবর্তী ৩ লাখ টাকা পর্যন্ত মোট আয়ে কর দিতে হবে ১০ শতাংশ হারে।

তার পরবর্তী ৪ লাখ টাকা পর্যন্ত আয়ে কর দিতে হবে ১৫ শতাংশ হারে। তারও পরবর্তী ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত আয়ে কর দিতে হবে ২০ শতাংশ হারে। আর এর চেয়ে বেশি আয়ের জন্য কর দিতে হবে ২৫ শতাংশ হারে।

ঢাকাটাইমস/০১জুন/এসএস/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

অর্থনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

অর্থনীতি এর সর্বশেষ

সোনালী ব্যাংকের আইটি অডিট সম্পাদনে কেপিএমজি’র সঙ্গে চুক্তি

হামদর্দের নতুন হারবাল ওষুধ অর্থোফিটের লঞ্চিং অনুষ্ঠিত

ইসলামী ব্যাংকের ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম উদ্বোধন

ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংকের অর্ধ-বার্ষিক ব্যবসায় সম্মেলন অনুষ্ঠিত

মার্কেন্টাইল ব্যাংকের উত্তরাঞ্চলের ‘হাফ-ইয়ারলী পারফর্মেন্স রিভিউ মিটিং অনুষ্ঠিত

বেসিস-এর ফিনটেক স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান হলেন নগদের ইডি এলিট

ইসলামী ব্যাংকের সঙ্গে নগদ লিমিটেডের রেমিট্যান্স সেবা সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষর

সাভারে নিজস্ব ভবনে বিএইচবিএফস'র কার্যক্রম উদ্বোধন

বেঙ্গল কমার্শিয়াল ব্যাংকের অর্ধবার্ষিক ব্যবসায়িক সভা অনুষ্ঠিত

সোনালী ব্যাংকে সেবা প্রদান প্রতিশ্রুতি বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :