পটুয়াখালীতে শাশুড়ির আগুনে দগ্ধ সেই গৃহবধূর মৃত্যু

পটুয়াখালী প্রতিনিধি, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১০ জুন ২০২৩, ১১:৫০ | প্রকাশিত : ১০ জুন ২০২৩, ১০:৩৫

পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলায় শাশুড়ির আগুনে দগ্ধ সেই গৃহবধূ হালিমা আক্তার মীম মারা গেছেন। দগ্ধ হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৪টায় শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে গৃহবধূ মীমের মৃত্যু হয়। এছাড়া দগ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে তার ৬ মাসের সন্তান জিসান।

এদিকে এ ঘটনায় নিহত হালিমা আক্তার মীমের মামা ওমর ফারুক বাদী হয়ে মীমের শাশুড়িকে এক নম্বর ও অজ্ঞাতনামা ৪ থেকে ৫ জনকে আসামি করে দুমকি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর শুক্রবার দুপুরে উপজেলার দুমকি সাতানি এলাকার বাড়ি থেকে শাশুড়ি পিয়ারা বেগমকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নিহত মীমের স্বামীর নাম জামাল হোসেন।

নিহত মীমের মামা ওমর ফারুক বলেন, আমার ভাগনিকে যারা হত্যা করেছে তাদের কঠিন বিচার চাই।

দুমকি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবুল বাশার বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পিয়ারা বেগম তার পুত্রবধূর সঙ্গে পারিবারিক কলহের কথা স্বীকার করেছেন। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে। দ্রুত সময়ের মধ্যে এ ঘটনায় জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তার করা হবে।

আরও পড়ুন: নোয়াখালীতে মাছ ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার বিকালে উপজেলার নতুন বাজার সংলগ্ন শাহজাহান মুন্সির (দারোগা) ভাড়া বাসায় নির্মম এ ঘটনা ঘটে। আগুনে নিহত হালিমা আক্তার মীমের শরীরের ৮০ শতাংশ ও তার শিশু সন্তান ওয়ালিফ হোসেন জিসানের হাত মুখসহ বিভিন্ন স্থান ঝলসে গেছে।

(ঢাকাটাইমস/১০জুন/এসএম)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :