জুমাতুল বিদা আজ, জানুন এ দিনের গুরুত্ব ও করণীয়

ইসলাম ডেস্ক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪০

রমজানের শেষ শুক্রবার আজ। মুসলিম উম্মাহর কাছে দিনটি জুমাতুল বিদা নামে পরিচিত। এটি রমজান মাসকে এক বছরের জন্য বিদায়ের ইঙ্গিত দেয়। মুসলমানদের কাছে এমনিতেই সপ্তাহের অন্য দিনের চেয়ে শুক্রবারের মর্যাদা বেশি। রমজান মাসের শুক্রবারগুলোর মর্যাদা আরও অধিকতর।

ইসলামে জুমাতুল বিদার গুরুত্ব অপরিসীম। জুমাতুল বিদা পবিত্র রমজানুল মোবারকের আখেরি জুমাকে বলা হয়। একদিকে যেমন জুমার ফজিলত পুরো সপ্তাহের মধ্যে সব দিনের সবচাইতে বেশি, তদ্রুপভাবে রমজান মোবারক ১২টি মাসের মধ্যে সবচাইতে বেশি ফজিলতপূর্ণ।

অতএব রমজানুল মোবারকের সর্বশেষ জুমা অত্যন্ত ফজিলত ও গুরুত্ব বহন করে। কেননা জুমাতুল বিদার মাধ্যমে আমরা রহমত বরকত মাগফিরাতে ভরপুর পবিত্র রমজান মোবারককে বিদায় জানাতে যাচ্ছি। সামনের ১১টি মাসের মধ্যে আর রমজানকে পাবো না। এমনকি আমার জীবনে আর রমজান শরিফ নসিব না-ও হতে পারে।

তাই রমজান মোবারককে বিদায় জানাতে গিয়ে আমাদের আফসোসের সঙ্গে একটু ভাবতে হবে। এখান থেকে আমাদের পাথেয় সংগ্রহ করে সামনের জীবনে আমাদের ইসলামের আলোয় আলোকিত করে অন্ধকারকে জয় করে সব পাপাচার থেকে নিজেকে রক্ষা করে ইমান আমলকে হেফাজত করে সামনে অগ্রসর হওয়ার শপথ গ্রহণ করতে হবে।

রমজানকে বিদায়ের ইঙ্গিত দেওয়া শেষ জুমার দিনটি তাৎপর্যপূর্ণ দিন। এদিন মসজিদে মসজিদে জুমার খুতবায় রমজান মাসের ফজিলত ও ইবাদতের গুরুত্ব ব্যাখ্যাসহ বিশেষ দোয়া হয়ে থাকে। মুসলমানদের প্রথম কিবলা বায়তুল মোকাদ্দাস মুক্তির লক্ষ্যে রমজান মাসের শেষ শুক্রবার সারা বিশ্বে আল কুদস দিবস হিসেবেও পালিত হয়।

প্রতিবারের মতো এবারও সারাদেশে মসজিদে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করবেন ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা। জুমা শেষে তারা মহান আল্লাহর দরবারে ক্ষমা ও রহমত কামনা করবেন। আল্লাহ আপনাকে এবং আমাকেও সেই নামাজ এবং ক্ষমা ও রহমত কামনায় শামিল হওয়ার তৌফিক দান করুক।

(ঢাকাটাইমস/০৫এপ্রিল/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

ইসলাম বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :