বিএনপি-জামায়াত কেউ কাউকে ছাড়বে না: কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
| আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৪:০২ | প্রকাশিত : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৩:০৮

বিএনপি-জামায়াত দুদলকেই সাম্প্রদায়িক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, আদর্শগতভাবে মিল থাকা বিএনপি-জামায়াত কেউ কাউকে ছাড়বে বলে আমার মনে হয় না।

মঙ্গলবার সকালে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

গত ২০ বছর ধরে জামায়াত-বিএনপি একে অন্যের জোটসঙ্গী। কিন্তু যুদ্ধাপরাধের দায়ে নিবন্ধন বাতিল হওয়া জামায়াতের সঙ্গে সাম্প্রতিককালে বিএনপির সম্পর্ক কাটছে অনেকটাই শীতল। যুদ্ধাপরাধের কোনো তকমা যেন গায়ে না লাগে, সেজন্য বিএনপির একটি অংশ চেয়েছিল জামায়াতকে ছাড়াই পথ চলতে। তাই অনেকটা গা বাঁচিয়ে চলার চেষ্টা করেছে দলটি।

অন্যদিকে যুদ্ধাপরাধের দায়ে দলের শীর্ষ কয়েকজন নেতার ফাঁসি হওয়া ও জোটে গুরুত্ব কমে যাওয়ায় মনক্ষুণ্ন জামায়াত বিএনপির সঙ্গ ছাড়ছে বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিক হয়েছে। কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এখন থেকে দলটি ২০-দলীয় জোটের কোনো কর্মসূচি ও বৈঠকেও অংশ নেবে না গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়।

জামায়াত বিএনপি ছাড়ছে গণমাধ্যমের এমন প্রতিবেদনের বিষয়ে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এটা আমার কাছে মনে হয় না। বিএনপি জামায়াতকে, অথবা জামায়াত বিএনপিকে ছাড়বে, এটা হলেও কৌশলগত হতে পারে। এমনটি আমার হিসেবে আসে না।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘তাদের (বিএনপি-জামায়াত) চিন্তা ভাবনা, তারা যেই চেতনা ধারণ করে সেক্ষেত্রে তারা অনেক কাছাকাছি। দুটিই সাম্প্রদায়িক দল। দুটির চেতনা একই। কোনটা লিবারেল, কোনটা এক্সট্রিম।’

এ সময় উপজেলা নির্বাচনে বিএনপির অংশ নেওয়ার বিষয়ে জানতে চান সাংবাদিকরা। জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচনে বিএনপির মতো বড় দল অংশ না নিলে নির্বাচন ইনক্লুসিভ নিয়ে সংশয় থাকে, দেশে বিদেশে প্রশ্ন আসে। স্থানীয় নির্বাচনে কে আসল, কে বয়কট করল তা নিয়ে মাথাব্যথা নেই।’

ওবায়দুল কাদের বলেন ‘অনেকে দলীয় প্রতীকে না করে স্বতন্ত্র নির্বাচন করতে পারে। অনেক জায়গায় তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবে। তারা এলে ভালো, না এলেও প্রতিদ্বন্দ্বীর অভাব নেই।’

বিএনপি বলছে ডাকসু নির্বাচনও সরকার একতরফাভাবে করবে এ বিষয়ে করার প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রদল অংশ নেবে না, এটা তারা এখনো ঘোষণা দেয়নি। আপাতত দাবি দাওয়ার পক্ষে কিছু কিছু স্ট্যান্ড দলগতভাবে থাকতে পারে। বিএনপির টানাপোড়েন আছে।’

‘তবে তারেক রহমান যা বলবে ছাত্রদল সেটিই মেনে নেবে। ছাত্রদল তারেক রহমান অনুগত শুরু থেকেই। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের কথাই তারা শুনবে বলে আমি মনে করি। ডাকসু নির্বাচনে কারচুপির সুযোগ নেই।’

সড়ক দুর্ঘটনাকে সবচেয়ে বড় দুর্ঘটনা উল্লেখ করেন ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের বৈঠক ডেকে কিছু পদক্ষেপের বিষয়ে আলোলোচনা করব। দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য যারা বিশেষজ্ঞ আছেন, তাদের নিয়ে কমিটি করে দেবো। এর লাগাম টেনে ধরতে হবে।

সড়কে বিশৃঙ্খলার জন্য শক্তিশালী মহল দায়ী এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘আমি নিজে মন্ত্রী হয়েও দায় এড়াতে পারি না। মেট্রো রেল, পাতাল রেলসহ যেসব কাজ হচ্ছে এতে অনেক সমস্যাই সমাধান হয়ে যাবে। বিভিন্ন সড়কে কাজ চলছে, সেগুলো হলে অনেক সমস্যাই কমে যাবে। এখন দুর্ঘটনার সংখ্যা কম, কিন্তু নিহতের সংখ্যা বেশি।’

ঢাকাটাইমস/১২ফেব্রুয়ারি/এমএম/ওআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :