মায়ের কোল থেকে চুরি হওয়া সেই শিশুর লাশ উদ্ধার

বাগেরহাট প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ মার্চ ২০১৯, ১৮:২৪ | প্রকাশিত : ১৭ মার্চ ২০১৯, ১৬:০৭

বাগেরহাটে মায়ের কোল থেকে চুরি যাওয়া শিশুটির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার দুপুরে মোরেলগঞ্জের বিশারীঘাট এলাকার একটি শৌচাগার থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

গত ১০ মার্চ রাতে বিশারীঘাটা গ্রামে জানালার গ্রিল কেটে ঘুমন্ত মায়ের কোল থেকে আড়াই মাসের শিশু আব্দুল্লাহকে চুরি করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এরপর শিশুটিকে ফেরত পেতে পরিবারটির কাছে মুঠোফোনে প্রথমে ১০ লাখ এবং পরে পাঁচ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। এ ঘটনায় মোরেলগঞ্জ থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা করে পরিবার।

এই ঘটনায় শনিবার ঢাকার কল্যাণপুর থেকে ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত হৃদয় চাপরাশিকে আটক করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। তার দেয়া তথ্যে রবিবার বিশারীঘাটা গ্রামের কাচারি বাড়ি এলাকার আব্দুর রহমান শিকারির মৎস্যঘেরের শৌচাগার থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

মরদেহটি উদ্ধারের পর শিশুটির পিতা সোহাগ তাকে শনাক্ত করেন।

এর আগে মোরেলগঞ্জ উপজেলার নিশানবাড়িয়া গ্রামে হৃদয় চাপরাশির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তার মা, ভাই, বোন ও স্ত্রীসহ পাঁচজনকে আটক করে পুলিশ।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার  (মোরেলগঞ্জ সার্কেল) রিয়াজুল ইসলাম বলেন, ‘পুলিশের হাতে আটক শিশু অপহরণের প্রধান সন্দেহভাজন হৃদয় চাপরাশির দেয়া তথ্যে বিশারীঘাটা গ্রামের একটি ঘের পাড়ের শৌচাগার থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।’

পুলিশের ভাষ্য, শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার পথেই হৃদয়সহ তার সঙ্গীরা আব্দুল্লাহকে মেরে ফেলে। কেবল মুক্তিপণের দাবিতেই শিশুটিকে চুরি করা হয় বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে হৃদয়। 

বিশারীঘাটা গ্রামের সিরাজুল ইসলাম সোহাগের এখন সুমাইয়া নামে ১৯ মাস বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে।

শিশুটির বাবা সিরাজুল ইসলাম সোহাগ বলেন, ‘আমার মতো যেন আর কোন বাবা-মার কোল খালি না হয়। আপনারা এর বিচার করেন। আমার মেয়েটা সে দিন থেকে কেমন যেন ভয়ে থাকে। আমি না থাকলে ঘুমায় না। আব্দুল্লাহ বলে বলে ভাইকে ডাকে। আমি ওকে কি করে বুঝাব? কি করে নিজেকে সান্তনা দেব।’

ঢাকাটাইমস/১৭মার্চ/এমআর

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :