চাঁপাইনবাবগঞ্জে গম সংগ্রহের প্রথম দিনই অনিয়মের অভিযোগ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৫ মে ২০১৯, ২২:১২

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলা খাদ্য গুদামে কৃষকদের কাছ থেকে অভ্যন্তরীণ গম ক্রয় করে গুদামে সংরক্ষণের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বুধবার দুপুরে এই কাজের উদ্বোধন করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সাংসদ সামিল উদ্দীন আহম্মেদ শিমুল।

উদ্বোধনের প্রথম দিনই পোকাযুক্ত গম ক্রয়ের অভিযোগ করেন শিবগঞ্জ আওয়ামী যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মী ও স্থানীয়রা। পোকায্ক্তু গম হওয়ায় তারা গুদামের সামনে ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ (১৫ মে) থেকে সরকারিভাবে শিবগঞ্জ খাদ্য গুদামে গম ক্রয় শুরু হয়েছে। আর প্রথম দিন থেকেই পোকাযুক্ত গম ক্রয় করতে দেখা যায় গুদাম কর্তৃপক্ষকে। শিবগঞ্জ উপজেলার কৃষকদের কাছ থেকে গম ক্রয় করার কথা থাকলেও গম ক্রয় করছেন অন্য উপজেলার কৃষকের কাছ থেকে এটাও একপ্রকার অনিয়ম বা দুর্নীতি।

শিবগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রিজভী আলম রানা জানান, একটি সিন্ডিকেট চক্রের মাধ্যমে ভুয়া তালিকা তৈরি করে পোকা ও নষ্ট গম গুদাম ভর্তি করা হচ্ছে। আর প্রকৃত কৃষকদের গম ক্রয় থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। আর এই জন্যই তিনিসহ স্থানীয়রা পোকাযুক্ত গম ক্রয়ে বাধা সৃষ্টি করেন।

শিবগঞ্জ উপজেলার যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জানান, গম ক্রয়ে প্রথম দিনই অনিময়। এটা শিবগঞ্জ উপজেলাবাসীর কাছে নিন্দনীয় বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেখানে বাংলাদেশ আ.লীগ সরকারি সবাইকে দুর্নীতিমুক্ত করার আহ্বান করছেন।

শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার চৌধুরী রওশন জামিল জানান, গম ক্রয়ে কোন অনিয়ম হতে দেবেন না। শিবগঞ্জ উপজেলার কৃষকদের কাছ থেকে সংগৃহিত করা হবে গম।

তিনি আরো জানান, শিবগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় কৃষকদের উৎপাদিত সম্পূর্ণ পোকামুক্ত গম ক্রয় করা হবে। 

শিবগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার এস এম আমিনুজ্জামান জানান, পোকাযুক্ত গম বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। তিনি বলেন, আমার বিভাগের দায়িত্ব হলো শিবগঞ্জ উপজেলার প্রকৃত কৃষকদের তালিকা তৈরি করে দেয়া। আর তাদের কাছ থেকে উৎপাদিত পোকামুক্ত ভাল গম ক্রয় করা হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ (শিবগঞ্জ) আসনের সাংসদ সামিল উদ্দীন আহম্মেদ শিমুল জানান, শিবগঞ্জ উপজেলার স্থানীয় কৃষক, স্থানীয় এলাকার গম, ভাল গম এবং একজন কৃষক তিন টনের বেশি গম নয় চারটি শর্তে গম ক্রয় করা হচ্ছে গুদামে। এর বাইরে কোন গম ক্রয় করা হচ্ছে না। আর এগুলোর বাইরে গম ক্রয় করা হলে নিয়মের মধ্যে পড়ে না অনিময় বলা যাবে। আর আমি সাংসদ সদস্য এটা কখনই মেনে নেয়া সম্ভব নয়। তবে অনিয়ম যে করবে সে নিজেই দায়ভার বহন করবে এবং তার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান তিনি।

শিবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম জানান, গম ক্রয়ের বিষয় তিনি কিছুই জানেন না এবং তাকে জানানো হয়নি। কিন্তু তিনি বলেন, পোকাযুক্ত গম ক্রয় করা হয়ে থাকলে এটা খুব লজ্জার বা নিন্দনীয় বিষয়। সরকারি যেখানে দুর্নীতি বা অনিয়মকে দূর করতে চাই সেখানে এটা কখনোই মানা সম্ভব নয়। আর তিনি পোকাযুক্ত গম ক্রয়ের বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলবেন।

(ঢাকাটাইমস/১৫মে/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :