নন্দীগ্রামে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল মাদ্রাসাছাত্রী

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৪৫

বগুড়ার নন্দীগ্রামে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আখতারের হস্তক্ষেপে সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসাছাত্রী  বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে। শুক্রবার রাতে উপজেলার ভাটগ্রাম ইউনিয়নের কাথম গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বাবলু হোসেনের মেয়ে ও কাথম বালিকা মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীর সাথে একই গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে আজাদ আলীর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। খবর পেয়ে রাত ১২টার দিকে দিকে ইউএনও শারমিন আখতার মেয়ের বাড়িতে উপস্থিত হয়ে এ বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন। এসময় মেয়ের বাবা বাবলু হোসেন তার মেয়েকে প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না বলে অঙ্গিকার করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আখতার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গোপন খবরে অভিযান চালিয়ে এ বাল্যবিয়ে বন্ধ করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/১৬নভেম্বর/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :