প্রেমের টানে ইতালির তরুণী লক্ষ্মীপুরে

নিজস্ব প্রতিবেদক, লক্ষ্মীপুর
 | প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৮:৪৬

কথায় আছে ‘প্রেম মানে না কোনো ধর্ম, বর্ণ বা দেশ।’ সে কথা আবারও প্রমাণিত হলো। সুদূর ইতালি ছেড়ে বাংলাদেশি যুবকের প্রেমে পড়ে দেশ ছেড়েছেন এক তরুণী। গত বৃহস্পতিবার রাতে বাংলাদেশি তরুণ লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার ইকবাল হোসেনের (২৭) প্রেমের টানে ইতালি থেকে ছুটে এসেছেন তিনি। বিয়েও করেছেন দুজন। ওই তরুণী ইসলাম ধর্মগ্রহণ করে নাম রেখেছেন খাদিজা আক্তার (১৯)।

ইকবাল উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাপুর গ্রামের ওসমান আলী পাটোয়ারী বাড়ির আক্তার হোসেনের ছেলে। এ সংবাদ শুনে শুক্রবার সকাল থেকে তাদের দেখার জন্য দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসছে বহু মানুষ।

ইকবাল ও তার পরিবারের লোকজন জানান, প্রায় ছয় বছর আগে ইকবাল ইতালিতে গিয়ে ওই তরুণীদের একটি কোম্পানিতে চাকরির সুবাদে খাদিজার সঙ্গে পরিচয় ও প্রেম হয় তার। এরপর প্রায় দুই বছর ধরে ইকবাল বাংলাদেশে চলে আসে। পরে ওই তরুণী ইকবালের ফোনে ও ফেসবুকের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক চালিয়ে আসে। কিন্তু কাগজপত্রের কিছু সমস্যার কারণে ইকবাল আর ইতালিতে যেতে পারছে না। তাই গত বৃহস্পতিবার রাতে খাদিজা লক্ষ্মীপুরের রায়পুরের গ্রামের বাড়িতে এলে ইসলামি বিধান মতে তাদের বিয়ে হয়।

ভাষাগত কিছু সমস্যা থাকলেও বাঙালি নারীর মতোই স্বাভাবিকভাবে সব কাজ করছেন খাদিজা। পরছেন বাঙালি পোশাকও।

শ্বশুরবাড়িতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন খাদিজা। ইকবালের সঙ্গে প্রেম, বিয়ে, বাংলাদেশ সম্পর্কে জানান অনুভূতি। তার ভাষায়, বাংলাদেশের সংস্কৃতি ও পরিবেশ আমার অনেক ভালো লেগেছে। ইকবালকে অনেক ভালোবাসি। তার জন্যই বাংলাদেশে আসা। আমরা দুজন আজই (শুক্রবার) হানিমুনের জন্য কক্সবাজার ও মালয়েশিয়া যাব। আপনারা সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।

ছেলে-পুত্রবধূর জন্য দোয়া চাইলেন ইকবালের বাবা আক্তার হোসেন। তিনি বলেন, ছেলের বউ দেখে আমরা আনন্দিত। ছেলে-পুত্রবধূর উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি।

(ঢাকাটাইমস/২৮ফেব্রুয়ারি/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :