ব্রেস্ট ক্যানসার চিকিৎসায় আমরা এগিয়ে যাচ্ছি

হাসান শাহরিয়ার কল্লোল
 | প্রকাশিত : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৪৪

ধীরে ধীরে বাংলাদেশেও আমরা ব্রেস্ট ক্যানসারের চিকিৎসার আধুনিকতম অনুষঙ্গগুলো ব্যবহার করছি। এর অন্যতম হচ্ছে ‘হাইড্রোজেল মার্কার ক্লিপ’।

সিঙ্গাপুর ন্যাশনাল ক্যানসার সেন্টারে ব্রেস্ট টিমে কাজ করার সময় প্রায়ই এটা ব্যবহার করতাম। এই মার্কার ক্লিপটি খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে ওই সমস্ত রোগীর ক্ষেত্রে, যারা ব্রেস্ট ক্যানসারের সার্জারির আগে কেমোথেরাপি পেয়ে থাকেন, যাকে আমরা বলি ‘নিও অ্যাডজুভেন্ট কেমোথেরাপি’।

বিশেষত ‘ট্রিপল নেগেটিভ ক্যানসার’ বা আরও কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে যাদের সার্জারির আগে কেমোথেরাপি দেয়া হয়। যেমন, যাদের টিউমারের সাইজ অনেক বড় থাকে সেটিকে ছোট করার জন্য বা লোকালি অ্যাডভান্সড টিউমারকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য। কিন্তু এ ক্ষেত্রে সমস্যা হচ্ছে যারা এই থেরাপির পরে ‘ব্রেস্ট কনজারভিং সার্জারি’ বা ব্রেস্ট সম্পূর্ণ না কেটে ব্রেস্ট ক্যানসারের চিকিৎসা করতে চান, তারা আর সেটি পারেন না। কেননা কেমোথেরাপি দেয়ার পরে অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায় টিউমারটি সম্পূর্ণরূপে মিলিয়ে যায় যাকে আমরা বলি ‘কমপ্লিট কেমো রেসপন্স’।

আবার অনেক ক্ষেত্রে ‘পার্শিয়াল বা আংশিক কেমো রেসপন্স’ হলেও টিউমারটি এতটাই ছোট হয়ে যায় যে খালি হাতে সেটিকে আর খুঁজে পাওয়া যায় না অপারেশনের সময়। ফলে বহুদিন পর্যন্ত বাংলাদেশে এ সমস্ত রোগীর ক্ষেত্রে ‘ম্যাসটেকটোমি কিংবা সম্পূর্ণ ব্রেস্ট অপসারণ’ অপারেশন ছাড়া অন্য কোনো উপায় ছিল না। কিন্তু অধুনা বাংলাদেশে বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে শুরুতে এবং পরবর্তী সময় জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে ‘হাইড্রোজেল মার্কার ক্লিপ’ বসানো শুরু হয়।

তবে এই মার্কার ক্লিপটি বেশ ব্যয়বহুল হওয়ায় এটা অনেকেরই সামর্থ্যের বাইরে ছিল। কিন্তু এখন জাতীয় ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে রোগীদের জন্য এটি বিনামূল্যে সরবরাহ করা হচ্ছে। এজন্য আমি আমাদের হাসপাতালে সম্মানিত পরিচালক Qazi Mushtaq Hussain স্যার এবং আমাদের সার্জিকাল অঙ্কোলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডা. সেতাবুর রহমান স্যারকে ধন্যবাদ জানাতে চাই।

এই মার্কার ক্লিপের সুবিধা হচ্ছে কেমোথেরাপি দেয়ার পর যদি টিউমারটি ছোট হয়ে যায়, এমনকি নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় তারপরও ওই ক্লিপের চিহ্ন দেখে বা প্রয়োজনে সেখানে একটি গাইড ওয়্যার ব্যবহার করে ওই রোগীর ‘ব্রেস্ট কনজারভিং সার্জারি’ বা ব্রেস্ট না কেটে ব্রেস্ট ক্যানসারের চিকিৎসা করা সম্ভব।

একজন ‘ট্রিপল নেগেটিভ ব্রেস্ট ক্যানসার’ রোগীর ব্রেস্টে আমরা সফলভাবে এই মার্কার স্থাপন করেছি। এখন এই রোগীটি কেমোথেরাপি নেবে এবং পরবর্তী সময় আমরা তার বেস্ট কনজারভিং সার্জারি করব।

লেখক: চিকিৎসক ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব

ঢাকাটাইমস/২৯সেপ্টেম্বর/এসকেএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :