বাড্ডায় কলেজছাত্র শাতিল হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিসহ প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭:৫৮
নিহত আশফাকুর রহমান চৌধুরী শাতিল

রাজধানীর মেরুল বাড্ডার ডিআইটি প্রজেক্ট এলাকায় ছুরিকাঘাতে নৌবাহিনী (বিএন) কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী আশফাকুর রহমান চৌধুরী শাতিলকে (২০) ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামি রকিকে ধারালো অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে হত্যায় ব্যবহৃত ছুরিও।

পুলিশ বলছে, কিশোর গ্যাংদের একটি গ্রুপ এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

হত্যাকাণ্ডের একদিন পর আজ সোমবার বিকালে রকিকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগের এডিসি হাসানুজ্জামান মোল্লা।

হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।

রবিবার রাতে বাড্ডার মেরুল ডিআইটি প্রজেক্ট এলাকার ১৩ নম্বর রোডে রকির নেতৃত্বে স্থানীয় কিশোর গ্যাংয়ের একটি গ্রুপ শাতিল এবং তার সঙ্গে থাকা সোয়াইব হোসেন (১৮) ও রুপম দত্ত (১৮) নামে আরও দুই শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করে। তাদের উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় এশিয়া হাসপাতালে নেওয়া হয় এবং সেখান থেকে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে রাত পৌনে ১০ টায় শাতিলকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ বিষয়ে বাড্ডা থানায় মামলা করে শাতিলের পরিবার।

হাসপাতালে আহত রুপম জানান, দুই দিন আগে ১৩ নম্বর রোডে রকি তাকে ডেকে শাসান যে, তার সঙ্গে যেন তুই সম্বোধন করে কথা না বলেন। এরপর রবিবার সন্ধ্যায় রুপমকে একা পেয়ে মারধর করেন রকি। তা দেখে দৌড়ে গিয়ে সোয়াইব ও শাতিল তাকে রকির হাত থেকে বাঁচানোর চেষ্টা করেন। এ সময় তাদের মধ্যে মারামারি হয়। এক পর্যায়ে রকি তিনজনকে ছুরিকাঘাত করে দৌড়ে পালিয়ে যান।

ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মো. বাচ্চু মিয়া জানান, নিহতের বাঁ পায়ে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। আর সোয়াইবের বুকসহ শরীরের কয়েক জায়গায় ও রুপমের পিঠে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে। জরুরি বিভাগে তাদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

শাতিলের বাবা গোলাম মনিরুজ্জামান চৌধুরী জানান, তাদের বাসা ডিআইটি প্রজেক্টের ১১ নম্বর রোডে। গ্রামের বাড়ি ঢাকার দোহারে। বাংলাদেশ নৌবাহিনী কলেজ থেকে এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছিলেন সাতিল।

আহত সোয়াইবের বাবা শাহজাহান মিয়া জানান, তাদের বাসা ডিআইটি প্রজেক্টের ৫ নম্বর রোডে। তেজগাঁও পলিটেকনিকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়েন সোয়াইব।

(ঢাকা টাইমস/০৫ডিসেম্বর/আরআর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজধানী বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :