পঞ্চগড়ের ঘটনায় বিএনপি-জামায়াত উসকানি দিয়েছে: তথ্যমন্ত্রী

পঞ্চগড় প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ১২ মার্চ ২০২৩, ১৮:০১

পঞ্চগড়ে সহিংসতার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াত নেতারা উসকানি দিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। তিনি বলেন, পঞ্চগড়ে সহিংসতার ঘটনা ঢাকা এবং লন্ডন থেকে মনিটর করা হয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হামলা।

রবিবার দুপুরে পঞ্চগড়ের আহমদিয়া সম্প্রদায়ের ওপর হামলা, বাড়িঘরে ভাংচুর অগ্নিসংযোগ, লুটপাটসহ দুই যুবক হত্যার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন শেষে আহমদিয়া সম্প্রদায়ের বায়তুল আফিয়্যাত মসজিদের সামনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ আরও বলেন, পঞ্চগড়ের ঘটনায় শিবিরের বাঁশের কেল্লা ফেসবুক পেজ থেকে উস্কানি ছড়ানো হয়েছে। সাবেক সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা এবং হারুণ অর রশিদের ফেসবুক পেজ থেকে নানা ধরনের উস্কানিমুলক বক্তব্য দেওয়া হয়েছে। এই এলাকার বিএনপি জামায়াত নেতারাও ভেতরে ভেতরে উস্কানি দিয়েছে। তারা শুধু ওই সম্প্রদায়ের ওপর হামলা করেনি। তারা পুলিশের ওপর হামলা করেছে।

আহমদিয়া সম্প্রদায়কে উদ্দেশ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আপনাদের সঙ্গে সংহতি জানাতে আমরা এখানে এসেছি। আপনারা ভয় পাবেন না, আপনাদের সঙ্গে দেশের মানুষ আছে, আমরা আছি, আমাদের দল আছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, রাজাকারের উত্তরসূরিরা পঞ্চগড়ে জ্বালাও-পোড়াও, হত্যা, লুটপাট করেছে। ইসলাম কখনো, রাসুলুল্লাহ (সা.) কখনো ইসলামের নামে অন্যের ঘরবাড়ি জ্বালানোর কথা বলেনি। মানুষ হত্যা করার কথা বলেনি। ধর্মের নামে লুতরাজের কথা বলেনি। যারা এসব করেছে, তারা ইসলামের শত্রু।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ তো এখন ডিজিটাল। কে কখন কোথায় ফোন করে, ফোনে কী কথা বলে, কে কাকে কতবার ফোন করেছে, এটা ট্র্যাক করা তো কঠিন কাজ নয়। আমরা জানি কারা কী করেছে। এখানে কিছু স্থানীয় মানুষের সঙ্গে বহিরাগতরা অংশ নিয়েছে। তবে যারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত তারা যে দলের হোক, যে রংয়ের হোক তাদের পুলিশ অবশ্যই আইনের আওতায় আনবে। বর্তমানে পুলিশের সেই প্রযুক্তি রয়েছে। মাটির নিচ থেকে হলেও তাদের গ্রেপ্তার করা হবে।

এতে রেলমন্ত্রী ও পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য নূরুল ইসলাম সুজন, কেন্দ্রিয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মজাহারুল হক প্রধান, আহমদিয়া সম্প্রদায়ের গণসংযোগ বিভাগের প্রধান আহমদ তবশীর চৌধুরি কথা বলেন। এ সময় জেলা প্রশাসক মো. জহুরুল ইসলাম, পুলিশ সুপার এসএম সিরাজুল হুদা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আমিরুল ইসলাম, পঞ্চগড় পৌর মেয়র জাকিয়া খাতুনসহ প্রশাসন ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। বিকালে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ শহরের শেরে বাংলা পার্ক মোড়ের মুক্তমঞ্চে জেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত শান্তি সমাবেশে যোগ দেন।

এর আগে ৩ মার্চ আহমদ নগরে আহমদিয়া স¤প্রদায়ের তিন দিনব্যাপী বার্ষিক সালানা জলসা বন্ধের দাবিতে সম্মিলিত খতমে নবুওয়াত সংরক্ষণ পরিষদ সমর্থক মুসল্লিরা বিক্ষোভ করেন। তাদের অমুসলিম ঘোষণার দাবিতে শহরে ব্যাপক তাণ্ডব চালায় বিক্ষুব্ধরা। এতে রণক্ষেত্রে পরিণত হয় পঞ্চগড়। সংঘর্ষে দুই যুবক মারা যান। রাত ৮টায় ঘোষণা দিয়ে জলসা বন্ধ করা হলেও পরদিন শনিবার গুজব ছড়িয়ে আবারও ওই স¤প্রদায়ের লোকজনের বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুরসহ অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

(ঢাকাটাইমস/১২মার্চ/এআর)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :