আমপাতার ভেষজ গুণ জানলে আম ছেড়ে পাতাই খাবেন

স্বাস্থ্য ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৪ মার্চ ২০২৩, ০৯:১৫

শীত পেরিয়ে চলে এসেছে গরমকাল। এই মৌসুমের সেরা ফল আম। তবে আম আমরা সবাই খেলেও এর পাতার পুষ্টিগুণের কথা অনেকেই জানি না। বাতের ব্যথা থেকে শ্বাসকষ্ট ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে আমপাতার জুড়ি নেই।

আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে আমপাতার অনেক উপকারিতার কথা বলা হয়েছে। এই পাতা ব্যবহারের ফলে যেসব রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়, সে সব বিষয়েও আলোচনা করা হয়েছে। আমের পাতায় মেঞ্জিফিরিন নামে একটি সক্রিয় উপাদান থাকে, যা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী।

চলুন এক নজরে দেখে আসি কী কী উপকার করে আমপাতা-

হেঁচকি ওঠা বন্ধ হয়

অনেক সময় খেতে খেতে অনেকেরই বারবার হেঁচকি ওঠে। এই সময় আমপাতা পুড়িয়ে তার ধোঁয়া নাকের কাছে ধরলে হেঁচকির সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

আঁচিল সারায়

আঁচিল সারাতেও আমপাতা খুব উপকারী। আমপাতা পুড়িয়ে কালো করে নিন। সেই গুঁড়ার মধ্যে সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে আঁচিলে লাগান। দ্রুত সেরে যাবে ওই আঁচিল।

কিডনিতে পাথর জমতে দেয় না

আমাদের দেশে এখন কিডনিতে পাথর হওয়া একটি সাধারণ বিষয়। এই সমস্যা থেকে দূরে রাখে আমপাতা। এর জন্য আমপাতা শুকিয়ে গুঁড়া করে নিন। এরপর প্রতিদিন সকালে এক গ্লাস পানিতে মিশিয়ে খান। দেখবেন, কিডনিতে আর পাথর জমার ভয় থাকবে না।

বাতের সমস্যা দূর করে

বাতের সমস্যায় কচি আমপাতা দারুণ উপকারী। কচি আমপাতা পানিতে ফুটিয়ে প্রতিদিন সেই পানি পান করুন। ভীষণ উপকার পাবেন।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে

কচি আমপাতা উচ্চ রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখে। শ্বাসকষ্টে ভুগলে প্রতিদিন সকালে আমপাতা দিয়ে তৈরি চা খান। কিছুদিনের মধ্যেই উপকার পাবেন। আমপাতার সাহায্যে ক্ষতও সারিয়ে ফেলা সম্ভব। আমপাতা পুড়িয়ে যে ছাই হয়, তা ক্ষতস্থানে লাগান, ব্যথার উপশম হবে অনেকটাই।

(ঢাকাটাইমস/২৪মার্চ/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :