তিন বছরের মধ্যে প্রথম চীন সফরে ইলন মাস্ক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ৩১ মে ২০২৩, ২০:৫৩ | প্রকাশিত : ৩১ মে ২০২৩, ২০:৫১

বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার সিইও ইলন মাস্ক চীন সফর করেছেন। গত তিন বছরের মধ্যে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশে এটি তার প্রথম সফর। তিনি মঙ্গলবার বেইজিংয়ে পৌঁছান এবং সাংহাইতে অবস্থিত টেসলার বৃহত্তম কারখানা পরিদর্শন করবেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

চীনে পৌঁছানোর ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাংয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন এই মাল্টি-বিলিয়নার।

তবে প্রকাশ্যে এখনো সফরের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি মাস্ক। তার এই সফরটি চীন-যুক্তরাষ্ট্র উত্তেজনার মধ্যে এসেছে। এমনকি বুধবার যখন তিনি বেইজিংয়ের হোটেল ত্যাগ করছিলেন তখন তার সফরের পরিকল্পনা সম্পর্কে সাংবাদিকদের করা প্রশ্নের উত্তর দিতে অস্বীকার করেছেন।

এদিনই, পরবর্তীতে তিনি চীনের শিল্পমন্ত্রী জিন ঝুয়াংলংয়ের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাতে তিনি মন্ত্রীর সঙ্গে বৈদ্যুতিক গাড়ির উন্নয়ন সম্পর্কে আলোচনা করেন।

মঙ্গলবারে প্রদান করা এক বিবৃতিতে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশে গাড়ি তৈরির ব্যবসা স্বেচ্ছায় প্রসার করার ইচ্ছা জানিয়েছেন মাস্ক। যুক্তরাষ্ট্রের পর এটি হবে টেসলার সবচেয়ে মার্কেট।

মন্ত্রী আরও বলেন, সাক্ষাতের সময় যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের অর্থনীতিকে ‘সংযুক্ত যমজ’ বলে বর্ণনা করেছেন মাস্ক।

তবে তার এই সফরের বিষয়ে নিজের মালিকানাধীন টুইটারে নীরব ছিলেন মাস্ক যেখানে তার ১৪ কোটির বেশি অনুসারি রয়েছে। সাধারণত টু্ইটারে তাকে একটু বেশি সরব থাকতে দেখা যায় যেকোনো ইস্যুতে। যদিও চীনে টুইটার নিষিদ্ধ তবে ভিপিএন বা ভার্চুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্কের মাধ্যমে সামাজিক মাধ্যমটি ব্যবহার করা যায়।

ইলন মস্ক হচ্ছেন চীন সফর করা সর্বশেষ হাই প্রোফাইল ধারী মার্কিন নির্বাহী ব্যক্তি। জেপি মরগানের প্রধান নির্বাহী জেমি ডিমনও চলতি ‍সপ্তাহে চীন সফর করেছেন। অপরদিকে অ্যাপলের সিইও টিম কুক মার্চে দেশটিতে সফর করে গেছেন।

বিনিয়োগ সংস্থা ওয়েডবুশ সিকিউরিটিজের ড্যান ইভস বলেছেন, যাইহোক, ওয়াশিংটন এবং বেইজিংয়ের মধ্যে উত্তেজনা বাড়ার সাথে সাথে নিজেকে একটি কঠিন পরিস্থিতিতে দেখতে পেয়েছে টেসলা।

গত বছর মাস্ক বলেছিলেন, সাংহাইয়ের করোনভাইরাস লকডাউন টেসলার জন্য ‘খুব, খুব কঠিন’ ছিল, যা কয়েক সপ্তাহ ধরে তার গিগাফ্যাক্টরিতে বেশিরভাগ উত্পাদন বন্ধ করে দিয়েছিল। তার মতে, কারখানায় পুনরায় কাজ শুরু হয়েছে, যা আগস্টে তার মিলিয়নতম গাড়ি তৈরি করেছিল। টেসলার বৈশ্বিক উৎপাদনের এক তৃতীয়াংশ আসে কারখানাটি থেকে।

গত মাসে, সংস্থাটি বলেছিল তারা তার বড় আকারের ‘মেগাপ্যাক’ ব্যাটারি তৈরি করতে চীনে একটি নতুন কারখানা তৈরি করার পরিকল্পনা করেছে। বাজার গবেষণা সংস্থা জ্যাটো-এর মতে, চীন টেসলার মডেল ওয়াই গণ-বাজার বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য বৃহত্তম বাজার হয়ে উঠেছে। এই বছরের প্রথম তিন মাসে চীনে ৯৪ হাজারের বেশি মডেল ওয়াই গাড়ি বিক্রি হয়েছে, যা এটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের চেয়ে এগিয়ে রেখেছে।

(ঢাকাটাইমস/৩১মে/এসএটি)

সংবাদটি শেয়ার করুন

আন্তর্জাতিক বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :