নীলফামারীতে শিয়ালের কামড়ে ছয়জন আহত

নীলফামারী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০২৩, ১৯:২৬

নীলফামারীতে শিয়ালের কামড়ে অন্তত ছয়জন আহত হয়েছেন। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সদর উপজেলার চওড়া বড়গাছা ইউপির আরাজী দলুয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন ওই এলাকার ফজলার বাবুর স্ত্রী রুবি বেগম, তার ছেলে ওমর ফারুক, মেয়ে মিম আক্তার, হুমায়ূন কবিরের স্ত্রী উর্মি বেগম, মাহমুদের ছেলে তায়েবুল ইসলাম ও মজিবরের ছেলে আনিছুর রহমান।

এলাকাবাসী জানান, সকালে আনিছুর রহমান নামে এক ব্যক্তি বাড়ির পাশে ছাগল বাঁধার জন্য গেলে হঠাৎ জঙ্গল থেকে একটি শিয়াল বের হয়ে আসে এবং ছাগলটিকে ধরে ফেলে। আনিছুর রহমান ছাগলটিকে বাঁচাতে গেলে শিয়ালটি তার ওপর আক্রমণ চালায়। তার হাত-পায়ে কামড় দেয়। এক পর্যায়ে আনিছুর রহমান চিৎকার করলে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে শিয়ালটি পালিয়ে গিয়ে একটি বাড়িতে ঢুকে পড়ে। সেই বাড়িতে থাকা তিনজনকে কামড়ে আহত করে। সেখান থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় আরো দুইজনকে কামড় দিলে স্থানীরা শিয়াটিকে আটক করে মেরে ফেলে। ছয়জনের হাত-পায়ে ও গালে কামড়ের দাগ রয়েছে।

পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়।

চওড়া বড়গাছা ইউপি চেয়ারম্যান আবুল খায়ের বিটু জানান, সকালে ঘটনাটি শুনে দ্রুত ঘটনাস্থলে যাই এবং আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নওরিন জাহান জানান, শিয়ালের কামড়ে ছয়জন রোগী হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এর মধ্যে গুরুতর আহত শিশুসহ তিনজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/২৬ অক্টোবর/ইএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :