মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষদিন আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা টাইমস
 | প্রকাশিত : ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৮:৩০

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে দাখিল করা মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ের শেষদিন আজ সেমাবার। গত শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছিল এই কার্যক্রম। যাচাই-বাছাইয়ে গড়মিল পাওয়ায় এরইমধ্যে অনেক প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে গেছে।

তবে যাদের মনোনয়পত্র বাতিল হয়েছে, সুযোগ রয়েছে ফিরে পাওয়ার। নির্বাচন কমিশনে আবেদন করে ইতোমধ্যে কেউ কেউ মনোনয়ন ফিরে পেয়েছেন, কেউ পাননি, কারও কারও আবার আবেদন কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

তবে নির্বাচন কমিশন থেকে মনোনয়ন ফিরে না পেলেও আশাহত হওয়ার কারণ নেই। কারণ, হাইকোর্টে আপিল করে মনোনয়ন ফিরে পাওয়ার সুযোগও রয়েছে।

এবার মনোনয়নপত্র যাচাইয়ে যে বিষয়গুলো বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে তা হলো প্রার্থীর ব্যক্তি তথ্য। তথ্য গোপন করলেই যে কোনো প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হতে পারে, হচ্ছেও।

যাচাই-বাছাইয়ে বেশ গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে কয়েকটি বিষয়। এরমধ্যে রয়েছে-স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এক শতাংশ ভোটারের সমর্থনের তথ্য ঠিক কি না কিংবা কেউ তথ্য গোপন করেছেন কি না। এছাড়া কোনো প্রার্থী ফৌজদারি মামলার আসামি বা ঋণখেলাপি কি না তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। দেখা হচ্ছে প্রার্থীদের টেলিফোন, গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানির বিল পরিশোধের হালনাগাদ তথ্যও।

গত ৩০ নভেম্বর শেষ হয়েছে মনোনয়নপত্র দাখিলের সময়। নির্বাচনে অংশ নিতে ইচ্ছুক ২ হাজার ৭১২ জন ৩০০ আসনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। বর্তমানে মনোনয়ন যাচাই-বাছাইকে কেন্দ্র করে ব্যস্ত সময় পার করছে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়সহ মাঠ কার্যালয়গুলো।

শুক্রবার ও শনিবার বন্ধের দিনেও বেশ কর্মমুখর ছিল এসব অফিস। রবিবার প্রথম কার্যদিবসেও চিত্র ছিল একই রকম। যাচাই-বাছাই শেষে আজ সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে বৈধ প্রার্থীদের তালিকা জানানো হবে।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, বৈধ প্রার্থীর তালিকা প্রকাশের পর রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কমিশনে আপিল দায়ের ও নিষ্পত্তি ৫ থেকে ১৫ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৭ ডিসেম্বর। রিটার্নিং কর্মকর্তারা প্রতীক বরাদ্দ করবেন ১৮ ডিসেম্বর। নির্বাচনি প্রচার চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোটগ্রহণ হবে ৭ জানুয়ারি।

এবারের নির্বাচনে সারা দেশে মোট ভোটার ১১ কোটি ৯৬ লাখ ৯১ হাজার ৬৩৩ জন। গত ২ নভেম্বর সংসদ নির্বাচনের চূড়ান্ত ভোটার সংখ্যা প্রকাশ করে নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন কমিশনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, মোট ভোটারের মধ্যে পুরুষ ৬ কোটি ৭ লাখ ৭১ হাজার ৫৭৯ জন এবং নারী ভোটার ৫ কোটি ৮৯ লাখ ১৯ হাজার ২০২ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটারের সংখ্যা ৮৫২ জন।

(ঢাকাটাইমস/০৪ডিসেম্বর/এজে)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :