বুড়িমারী গণধর্ষণের মূলহোতা নুরনবী ও নজু গ্রেপ্তার

লালমনিরহাট প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৩ মার্চ ২০১৯, ১৯:৩৮

লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দর এলাকায় এক নারীকে বাসকাউন্টারে তিন দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ ঘটনার মূলহোতা নুরনবী ও নজুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে জেলার হাতীবান্ধা অডিটরিয়াম এলাকায় আনন্দ আবাসিক হোটেল থেকে এক নারীসহ তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এর আগে এই মামলায় বুড়িমারী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক জানান, গণধর্ষণের দুই মূলহোতা ওই আবাসিক হোটেলে অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাটগ্রাম থানা পুলিশের সহযোগিতায় সেখানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ওই হোটেলের মালিক হাতীবান্ধা উপজেলার বাড়াইপাড়ার নজরুল ইসলাম নজু ও পাটগ্রামের ইসলামপুর এলাকার নুরনবীকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই সময় এক নারীকেও আটক করা হয় সেখান থেকে। পরে তাদের পাটগ্রাম থানায় সোপর্দ করা হয়।

লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এস এম রশিদুল হক  দুজনের গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।
বিনা পাসপোর্টে ভারতে যাওয়ার ব্যবস্থার করে দেওয়ার কথা বলে শেরপুর থেকে এনে তিন দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ করে আসামিরা। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে বুড়িমারী স্থলবন্দর এলাকায় যশোদা পরিবহন নামে বাস কাউন্টার থেকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম থানার পুলিশ। ওই দিন রাতে ধর্ষিতা বাদি হয়ে চারজনের বিরুদ্ধে পাটগ্রাম থানায় একটি মামলা করেন। সে মামলায় রাতেই বুড়িমারী ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলামকে গ্রেপ্তার করা হয়।

(ঢাকাটাইমস/২৩মার্চ/মোআ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :