খুলনায় ফাঁসির আসামির আত্মসমর্পণ

খুলনা ব্যুরো, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২১ জুলাই ২০১৯, ১৭:৩৩

খুলনায় এক্সিম ব্যাংক কর্মকর্তা পারভীন সুলতানাকে গণধর্ষণের পর বাবা ইলিয়াছ চৌধুরীসহ শ্বাসরোধে হত্যা মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত পলাতক আসামি শরিফুল ইসলাম আত্মসমর্পণ করেছেন। আদালতের বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

রবিবার বেলা ১১টার দিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এ আত্মসমর্পণ করেন তিনি। মামলাটির রাষ্ট্রপক্ষের স্পেশাল পিপি ফরিদ আহমেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, লবণচরা থানার বুড়ো মৌলভীর দরগা রোডের বাসিন্দা শরিফুল ইসলাম আত্মসমর্পণ করেছেন। ১৬ জুলাই হত্যা মামলায় পাঁচজন আসামির ফাঁসির আদেশ দেয় আদালত। আসামিদের মধ্যে শরিফুল ইসলাম পলাতক ছিলেন।

প্রসঙ্গত, এক্সিম ব্যাংক কর্মকর্তা পারভীন সুলতানাকে গণধর্ষণ ও তার পিতা ইলিয়াস চৌধুরীকে হত্যা করা হয়। হত্যা করে সেফটি ট্যাংকির মধ্যে বাবা ও মেয়ের মরদেহ ফেলে দেয় আসামিরা। পরে ঘরে লুটতরাজ চালিয়ে পালিয়ে যায় তারা। নগরীর লবণচরা থানার বুড়ো মৌলভীর দরগা এলাকার ৩নং গলির ঢাকাইয়া হাউজ এপি ভিলা নামে বাড়িতে ২০১৫ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর নৃশংস এ খুনের ঘটনা ঘটে। পারভীন সুলতানাকে গণধর্ষণের পর তার বাবা ইলিয়াছ চৌধুরীসহ হত্যা এবং লুটপাটের ঘটনায় পৃথক দু’টি মামলা হয়। এর মধ্যে হত্যা মামলার পাঁচ আসামি লবণচরা থানার বুড়ো মৌলভীর দরগা রোডের বাসিন্দা শেখ আব্দুল জলিলের ছেলে সাইফুল ইসলাম পিটিল, তার ভাই শরিফুল, আবুল কালামের ছেলে  লিটন, অহিদুল ইসলামের ছেলে আবু সাইদ ও মৃত সেকেন্দারের ছেলে আজিজুর রহমান পলাশের ফাঁসির রায় হয়। আসামিদের মধ্যে শরিফুল পলাতক ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২১জুলাই/এলএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :