প্রথম ম্যাচে বায়ার্নের হোঁচট

ক্রীড়া ডেস্ক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০১৯, ১৩:৩৪ | প্রকাশিত : ১৭ আগস্ট ২০১৯, ১৩:৩২

পোলিশ স্ট্রাইকার রবার্ট লেওয়ানদোস্কির জোড়া গোলেও বুন্দেসলিগার প্রথম ম্যাচে জয় অধরা রইল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখের। পচা শামুকে পা কাটার মতোই বুন্দেসলিগার ওপেনিং ম্যাচে গত মৌসুমে একাদশ স্থানে শেষ করা হারথা’র বিরুদ্ধে ২-২ গোলে আটকে গেল বায়ার্ন। গত মৌসুমে জোড়া ঘরোয়া ট্রফি (বুন্দেসলিগা, জার্মান সুপার কাপ) জয়ের স্বাদ গায়ে মেখেই শুক্রবার ঘরের মাঠে নয়া মৌসুমের সূচনা করে নিকো কোভাচের ছেলেরা।

বার্সেলোনা থেকে ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফিলিপ কুতিনহোকে লোনে একবছরের জন্য এদিন কার্যত নিশ্চিত করে ফেলেছে জার্মান জায়ান্টরা। ২৪ মিনিটে সার্জ ন্যাবরির ক্রস থেকে লেওয়ানদোস্কির গোলে ম্যাচে এদিন লিডও নেয় ২৯ বারের লিগ জয়ীরা। কিন্তু মাত্র ১২ মিনিট স্থায়িত্ব হয় বায়ার্নের সেই লিড। ৩৬ মিনিটে দোদি লুকেবাকিওর দূরপাল্লার শট এক এক সতীর্থের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়েও খুঁজে নেয় গোলের ঠিকানা। ঠিক দু’মিনিট বাদে প্রতি-আক্রমণে বায়ার্ন রক্ষণের ফাঁক খুঁজে হারথাকে এগিয়ে দেন মার্কো গ্রুজিচ।

বিরতির পর নায়ক থেকে হঠাতই খলনায়ক বনে যান সার্বিয়ান মিডফিল্ডার গ্রুজিচ। বক্সের মধ্যে লেওয়ানদোস্কিকে অযথা ফাউল করে বায়ার্নকে পেনাল্টি উপহার দেন তিনি। স্পটকিক থেকে সমতা ফেরাতে কোনও ভুল করেননি পোলিশ স্ট্রাইকার। সমতায় ফিরে জয়সূচক গোলের লক্ষ্যে এরপর বিপক্ষ রক্ষণে একের পর এক আক্রমণ শানাতে থাকেন বায়ার্নের আক্রমণভাগের ফুটবলাররা। তবে হারথা রক্ষণ ভেদ করে কাঙ্ক্ষিত তৃতীয় গোলের দেখা পায়নি জার্মান জায়ান্টরা। উলটোদিকে গোলসংখ্যা বাড়াতে পারেনি হারথাও। ফলে এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় দু’দলকে।

ম্যাচের পর জোড়া গোলদাতা লেওয়ানদোস্কি জানান, ‘আমরা ভালই ফুটবল উপহার দিয়েছি। গোল লক্ষ্য করে ওরা একটাই শট নিতে পেরেছে। ভাগ্য ওদের সহায় ছিল।’ বায়ার্ন কোচ কোভাচের কথায়, ‘প্রথম ম্যাচ হিসেবে এই ফলাফল খুব একটা খারাপ নয়। আমরা তুলনামূলক অনেক ভালো ফুটবল খেলেছি, আমাদেরই জেতা উচিৎ ছিল।’

(ঢাকাটাইমস/১৭ আগস্ট/এসইউএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

খেলাধুলা বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :