ইভিএম নয়, এটা ইলেক্ট্রনিক ফ্রড মেশিন: রেজা কিবরিয়া

চাঁদপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:৩৪ | প্রকাশিত : ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ১৭:০৮

ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন ‘ইভিএম’কে প্রতারণা ও জাল-জালিয়াতির মেশিন বলে আখ্যায়িত করলেন গণফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া। তিনি বলেন, ‘ইভিএম নয়, এটা ইলেক্ট্রনিক ফ্রড মেশিন’।

শনিবার সকালে গণফোরাম চাঁদপুর জেলা পরিষদ আয়োজিত কর্মী সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি। চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এ সমাবেশ হয়।

‘গণতন্ত্র উদ্ধারে জাতীয় ঐক্য গড়ে তুলুন’' স্লোগানে অনুষ্ঠিত এ কর্মী সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন দলটির চাঁদপুর জেলা পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট সেলিম আকবর।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা শাহ এ এম এস কিবরিয়ার ছেলে ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, ‘সেদিন বেশী দূরে নয় যে সময় গণফোরাম দেশের নেতৃত্বে দেবে। আমার বাবার দল আওয়ামী লীগ সারাদেশের মানুষের কাছে ভোট চোর হিসেবে চিহ্নিত। তারা আজ ভোট ও ভোটারদের সবচেয়ে বেশী ভয় পায়। দেশে ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধির কথা বলে কিন্তু তা পুরোটাই মিথ্যা।’

তিনি বলেন, ইভিএম কে আমি বলি ইভিএফ। এটা ইলেক্ট্রনিক ফ্রড মেশিন। বিশ্বের ৩১ দেশ পরীক্ষা করে এটি বাদ দিয়েছে। মাত্র চারটি দেশ এটিকে গ্রহণ করেছে। আজ ঢাকা সিটির নির্বাচনে ইভিএম দিয়ে ভোট চুরির নতুন উপায় বের করা হয়েছে। জনগণের দাবি এ সরকার মানছে না। আমরা চাই আইনের শাসন ও জবাবদিহিতামূলক সরকার।

বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ড. রেজা কিবরিয়া বলেন, আমার বাবা থাকাকালীন সময়ের আওয়ামী লীগ ও বর্তমান আওয়ামী লীগে অনেক তফাত রয়েছে। আজ ১৫টি বছর হতে চললো আমার বাবার হত্যার একটি সুষ্ঠু তদন্ত এখনো আমাদের পরিবার দেখতে পরিনি।   চাঁদপুরে এসে মনে হচ্ছে উন্নয়ন হয়েছে সারাদেশে। কিন্তু আমার মনে হয় উন্নয়নটা ঢাকা কেন্দ্রীক। আজ দেশে ধর্ষণ, গুম হত্যা দেশে কালচার হয়ে গেছে। দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা ভালো নয়। অর্থনৈতিক ধসের জন্য এ সরকারের পতন ঘটবে। এর ফল সরকার ভোগ করবে। সাথে দেশের মানুষের অনেক কষ্ট হবে। আওয়ামী লীগ ভাবে পেঁয়াজ ছাড়া রান্না হবে, ভোট ছাড়া নির্বাচন হবে।’

বিএনপি আমাদের সঙ্গে আছে উল্লেখ করে রেজা কিবরিয়া বলেন, বেগম জিয়াকে সুষ্ঠু চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে না। ওনার মেডিক্যাল রিপোর্টে ধুম্রজাল রয়েছে। উনি  তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী। উনি আমাদের দলের কেউ না। তবু ওনার প্রতি এ অবমাননার প্রতিবাদ করতে হবে।

‘বর্তমানে জাতির বিবেক হিসেবে ড. কামাল হোসেনকে দেখা হচ্ছে। ওনি ৮২ বছর বষয়ে দেশের মানুষের জন্য এখনো কিছু করেতে চান। আপনার সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড সঠিকভাবে করবেন। আপনাদের শক্তিালী নেতৃত্বে দেশকে ভালো অবস্থায় নিতে পারবো।

সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন গণফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মোকাব্বির খান এমপি। তিনি বলেন, আজ বাংলাদেশের সাত লাখ কোটি টাকা বিতেশে পাচার হয়েছে। দেশের পূঁজি বাজারকে ধ্বংস করা হয়েছে। সংসদে বলেছিলাম দুর্নীতি  দমন করতে হলে শীর্ষ দুর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করে বিশেষ ট্রাইবুনালে বিচার শুরু করেন। জাতির জনক দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলেছিলেন। কিন্তু তার হাতে গড়া দল দুর্নীতি দমনে তেমন কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

গণফোরাম চাঁদপুর জেলা পরিষদের সাধারণ সম্পাাক নজরুল ইসলাম বাবুলের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য দেন গণফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির প্রেসিডিয়াম সদস্য মহসিন রশিদ, সুব্রত চৌধুরী, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহাম্মদ, দপ্তর সম্পাদক মো. আজাদ হোসেন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন মো. নূরুল হক মিয়া ও গীতা পাঠ করেন বাসুদেব মজুমদার।

ঢাকাটাইমস/১৮জানুয়ারি/ইএস

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :