হাজারো পরিবারের ক্ষুধা মেটানোর দায়িত্ব নিলেন শাহিন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২০, ১৩:৫৭ | প্রকাশিত : ২৮ মার্চ ২০২০, ১৩:৫১

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার ছিন্নমূল, হতদরিদ্র এক হাজার পরিবারের ক্ষুধা মেটানোর দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন মোহাম্মদপুর থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সায়েম শাহিন।

দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে সরকারের পক্ষ থেকে গত ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশব্যাপী ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। এসময় হাসপাতাল, ফার্মেসি, বাজার, মুদি দোকান ও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ছাড়া অন্যান্য সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকারের এই পদক্ষেপ সকল মহলে সমর্থন পেলেও এতে অনেকটা বিপাকে পরেছেন রাজধানীর খেটে খাওয়া মানুষগুলো। প্রতিদিনের আয়ের উপর যাদের জীবিকা নির্ভর করে, তাদের আয়ের পথ বন্ধ। এমন মানুষের মুখে খাবার তুলে দিতে উদ্যোগ নিয়েছেন আবু সায়েম শাহিন।

ঢাকা টাইমসকে তিনি জানান, রাজধানীতে অনেক হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষ রয়েছে। বর্তমান সময়ে যাদের খাবার প্রয়োজন। ঠিক ওই মানুষগুলোকে শনাক্ত করে প্রয়োজনে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাবার পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে মোহাম্মদপুর ও মিরপুরের বিভিন্ন জায়গায় এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে বলে শাহিন জানান।

তিনি বলেন, ‘আমরা যারা এই শহরে বাস করি। সমাজের প্রতি তাদের কিছু দায়িত্ব আছে। আমি যদি মানুষের এই বিপদের সময় মানুষের পাশে দাঁড়াতে না পারলাম, তাহলে আমি কেমন মানুষ! নিজের দায়িত্ববোধ থেকে ব্যক্তি উদ্যোগে এবং আমার সাধ্য ও সামর্থ অনুযায়ী চেষ্টা করছি, যেন কেউ না খেয়ে না থাকে।’

এক হাজারের বেশ পরিবারের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন শাহিন। প্রয়োজনবোধে তা আরও বাড়ানো হবে জানিয়ে শাহিন বলেন, ‘আমরা এখনি সবাইকে খাদ্য সামগ্রী দিয়ে দিচ্ছি না। যারা অভাবে আছে, কেবল তাদেরকে দিচ্ছি। আপাতত এগারশো পরিবারের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রয়োজনে সেটি আরও বাড়ানো হবে।’

মোহাম্মদপুরের ৫৪টি বাড়িতে বিদেশ ফেরত লোক রয়েছে। পুলিশ সদর দপ্তর থেকে পাঠানো তালিকা অনুযায়ী ৫৪টি বাড়ির শনাক্ত করে তার সামনে হোম কোয়ারেন্টাইনের ব্যাবার লাগিয়েছে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ। এসব বাড়িতে অবস্থানকারী কেউ যদি খাদ্য সংকটে থাকেন তাহলে তাদেরকে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হবে বলে জানান শাহিন। বলেন, ‘যারা হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। তাদের মধ্যে কারো যদি খাদ্য সংকট থাকে, পুলিশের সহযোগিতা পেলে আমরা তাদেরকে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করব।

দেশের এমন পরিস্থিতিতে সমাজের খেটে খাওয়া মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে বিত্তশালীদের যার যার জায়গা থেকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

শাহিনের এই কার্যক্রমে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করছেন আবু তাহের, সুইট, রুবেল, ইমন, জয়নাল আবেদিন, টুটুল সহ এক ঝাঁক তরুণ।

(ঢাকাটাইমস/২৮মার্চ/কারই/এজেড)

সংবাদটি শেয়ার করুন

জাতীয় বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :