স্বামীর বাড়িতে সন্তানসহ ৫ দিন ধরে গৃহবধূর অনশন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ১১ আগস্ট ২০২০, ১৯:৩২ | প্রকাশিত : ১১ আগস্ট ২০২০, ১৯:০১
পারিবারিক স্বীকৃতির দাবিতে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডাকবাংলা উত্তর নারায়ণপুর গ্রামে স্বামীর বাড়িতে ৯ বছরের এক কন্যা সন্তান নিয়ে ৫ দিন ধরে অনশন করছেন এক নারী। গত বৃহস্পতিবার থেকে এই অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০০৯ সালে সদর উপজেলার ডাকবাংলা উত্তর নারায়ণপুর গ্রামের মৃত খাদিমুলের ছেলে মেহেদী হাসান বাবুর সাথে পাশ্ববর্তী ডাকবাংলা বাজারের মৃত এহেসানুল হকের মেয়ে রোকসানা খাতুনের বিয়ে হয়। বিয়ের পরে তাদের ঘরে মেহেমিন মারিয়া নামের এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়।
রোকসানা অভিযোগ করে বলেন, ২০০৯ সালে আমরা সম্পর্ক করে বিবাহ করেছি।বিবাহের পর আমার শ্বশুর বাড়ির লোকজন মেনে না নেওয়ায় আমার স্বামী আমাকে নিয়ে ঝিনাইদহ শহরের পাগলাকানাই এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস ও সংসার করে আসছিল। পরে তাদের একটি কন্যা সন্তান হয়। এরই মাঝে গত কিছুদিন ধরে আমার স্বামী আমার সাথে কোনো যোগাযোগ না করায় আমি আমার স্বামীর বাড়িতে আসি। আমাকে ওই বাড়িতে শ্বাশুড়ির নেতৃত্বে স্বামীর পরিবারের লোকজন আমার এবং আমার সন্তানকে আটকিয়ে রাখে। এ খবর পেয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে পৌঁছে আমাকে তাদের কাছে বুঝিয়ে রেখে আসে। এ ঘটনায় বুধবার এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বিচার শালিসের দিন ধার্য করা হয়েছে উপজেলা পরিষদ কার্যালয়ে।
তবে, এসকল নির্দেশ উপেক্ষা করে শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে ফেলে রেখে বাড়ি থেকে সরে পড়েছেন বলে জানান তিনি। তিনি বলেন, বর্তমান আমি ওই বাড়িতে সন্তান নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি। আমি এ ঘটনায় সুুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।
(ঢাকাটাইমস/১১আগস্ট/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :