শরীয়তপুরে দুইপক্ষের হামলায় আহত ৩, ককটেল উদ্ধার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৯:০১

শরীয়তপুরের নড়িয়া পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এক পক্ষ আরেক পক্ষের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে নারীসহ দুইপক্ষের তিনজন আহত হয়েছেন। তারা হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

পরে গোপণ সংবাদে অভিযান চালিয়ে পৌরশহরের শুভগ্রাম এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ভিটা থেকে পাঁচটি ককটেল ও পাঁচটি রামদা উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। রবিবার দুপুর ২টার দিকে রামদা ও পরিত্যক্ত অবস্থায় ককটেলগুলো উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার রামদা ও ককটেল থানায় রাখা হয়েছে। ককটেল নিষ্ক্রিয় করা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নড়িয়া পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ডালিম প্রতীক নিয়ে আবু জাফর শেখ ও উঠপাখি প্রতীকে মোকলেছ ব্যাপারী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। এর মধ্যে বিজয়ী হোন আবু জাফর শেখ। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবু জাফর ও মোকলেছের সমর্থকদের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। আজ দুপুর ১২টার দিকে মোকলেছ ব্যাপারী নড়িয়া বাজারে এলে আবু জাফরের সমর্থকরা মোকলেছের ওপর হামলা চালায়। তখন মোকলেছ আহত হন। স্থানীয়রা তাকে নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে মোকলেছের সমর্থকরা আবু জাফরের সমর্থক বারইপাড়া গ্রামের মৃত জালাল উদ্দিন মৃধার ছেলে ছলেমান মৃধা ও তার ছেলের বউ মারিয়া আক্তারকে পিটিয়ে আহত করে। তাদের শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পরে গোপন সংবাদে অভিযান চালিয়ে শুভগ্রাম এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ভিটা থেকে পাঁচটি ককটেল ও পাঁচটি রামদা উদ্ধার করেছে নড়িয়া থানা পুলিশ।

নড়িয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএম মিজানুর রহমান জানান, নড়িয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালেয় সংলগ্ন শুভগ্রাম এলাকায় আবু জাফর শেখ ও মোকলেছ ব্যাপারীর মধ্যে মারামারির প্রস্তুতি চলছিল শুনে সেখানে যাই। সোর্সের মাধ্যমে জানতে পারি, মোকলেছের গ্রুপ ককটেল, দাসহ আরও কিছু অস্ত্র জমা করছে। পরে ওই ককটেল ও রামদাগুলো উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তদন্ত চলছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

(ঢাকাটাইমস/৭ফেব্রুয়ারি/পিএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :