৫৫ বছর পর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথে আমদানি-রপ্তানি শুরু

নীলফামারী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ০২ আগস্ট ২০২১, ১১:০১

দীর্ঘ ৫৫ বছর বন্ধ থাকার পর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথে আবারও আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে। রবিবার দুপুরে পাথর বোঝাই ওয়াগন নিয়ে বাংলাদেশে ঢুকেছে ভারতীয় পণ্যবাহী ট্রেন। ভারতের আলিপুরদুয়ার ডিভিশনে ডামডিম স্টেশন থেকে ট্রেনটি ছাড়ে এবং বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে চিলাহাটি স্টেশনে প্রবেশ করে।

এসময় নীলফামারী চিলাহাটি স্টেশনে ট্রেনের চালকসহ অন্যান্য স্টাফদের ফুলের শুভেচ্ছা জানান বাংলাদেশ রেলওয়ের কর্মকর্তারা। চায়না সেভেন ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান সিএনএফ এজেন্ট খান এন্ড সন্স এজেন্সি-এর মাধ্যমে এই রেলপথ দিয়ে প্রথমদিন ৪০টি ওয়াগনে মোট দুই হাজার ২৮৫ দশমিক ২০ মেট্রিকটন পাথর আমদানি করে। এসব পাথরের ওয়াগন যশোরের নোয়াপাড়া স্টেশনে খালাস করা হবে।

চিলাহাটি রেলস্টেশন মাস্টার আশরাফুল ইসলাম বলেন, ভারতীয় রেল ইঞ্জিনের মাধ্যমে দুই হাজার ২৮৫ দশমিক ২০ মেট্রিক টন পাথর নিয়ে মালবাহী ট্রেনটি চিলাহাটি এসেছে। প্রতি ওয়াগনে গড়ে ৫৯ মেট্রিক টন করে পাথর রয়েছে।

সূত্র জানায়, পাথর বোঝাই ৪০টি ওয়াগনের মালামাল থেকে ভাড়া বাবদ বাংলাদেশ রেলওয়ে ১৫ লাখের বেশি টাকা আয় করবে। দূরত্ব অনুযায়ী ভাড়া কম-বেশি হবে। নিয়মিতভাবে ভারত থেকে পণ্য এলে চিলাহাটি স্থলবন্দর দিয়ে রেলপথে পণ্য পরিবহনে বাংলাদেশ রেলওয়ে প্রতিদিন ৬ থেকে ১৮ লাখ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবে।

দীর্ঘ ৫৫ বছর বন্ধ থাকার পর গেল বছরের ১৭ ডিসেম্বর পণ্যবাহী এবং চলতি বছরের ২৭ মার্চ যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের উদ্বোধন করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। পণ্য পরিবহনে সময় ও ভাড়া উভয়দিক থেকে বাণিজ্যিক সুবিধার জন্য ভারত ও বাংলাদেশ সরকার চিলাহাটি-হলদিবাড়ি সীমান্তের রেলপথটি পুণরায় চালু করেছে। এই রেল সংযোগকে নেপাল, ভুটান ও ভারতের উত্তাঞ্চলের সঙ্গে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক সম্পর্কের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো বলে বিবেচনা করা হচ্ছে।

(ঢাকাটাইমস/২আগস্ট/পিএল)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :