মোবাইল ফোন কোম্পানির কর্মী হত্যায় গ্রেপ্তার আরও ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৫ নভেম্বর ২০২১, ১৯:১৪

গাজীপুরে অপো মোবাইল ফোন কোম্পানির বিক্রয়কর্মী হত্যার ঘটনায় আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। গ্রেপ্তাররা হলেন- তানভীর আহমেদ, মো. সাকিব ও মো. সাগর।

বৃহস্পতিবার সিআইডির সদর দপ্তর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১২ নভেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে গাজীপুর মহানগর পুলিশের (জিএমপি) শাসন থানার গাজীপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়কের নাওজোড় এলাকায় মেহেদী হাসান তুহিন নামের এক ব্যক্তির গলা কেটে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় পরের দিন নিহত তুহিনের বাবা রফিকুল ইসলাম বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলায় অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করা হয়।

সিআইডি জানায়, এ ঘটনায় ওই ঘটনার বিষয়াদি যাচাই বাছাই করে ঘটনার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করা হয়। এছাড়াও সিআইডির এলআইসির একাধিক টিম দেশের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়। অভিযানে মো. সুমন হোসেন মো. হজরত , মো. মাসুদ রানা, মো. অলিয়ার রহমান (রাজু) এবং মো. ফখরুল ইসলাম নামের পাঁচ ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময়ে তাদের কাছ থেকে ছিনতাইয়ের কাজে ব্যবহৃত একটি অটো উদ্ধার করা হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পরবর্তীতে গ্রেপ্তারকৃত পাঁচ আসামিদেরকে আদালত নিয়ে রিমান্ডে নেওয়া হয়। তখন তাদের দেওয়া তথ্যমতে গতকাল বুধবার গাজীপুর জেলার জামালপুর এলাকা থেকে তানভীর আহমেদ, মো. সাকিব এবং মো. সাগর নামের আরো তিন ছিনতাইকারী চক্রের সদস্যদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের বরাত দিয়ে সিআইডি জানায়, গ্রেপ্তারকৃত মূলত ছিনতাইকারী দলের সক্রিয় সদস্য। তারা ১২ ডিসেম্বর রাত সাড়ে আটটার দিকে আগে গ্রেপ্তার হওয়া পাঁচ আসামিদের সাথে এক হয়ে অপো মোবাইল কোম্পানীর বিক্রয়কর্মী মেহেদী হাসান তুহিনকে ধারালো চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। পরে তার লাশ ফেলে পালিয়ে যায়।

নিহত মেহেদী হাসান তুহিন গাজীপুর জেলার বাসন থানার মজলিশপুর গ্রামের মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি গাজীপুরের ভাওয়াল বদরে আলম সরকারী কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের সম্মান শেষ বর্ষের ছাত্র ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২৫ নভেম্বর/এএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

বাংলাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :