পারিবারিক ঘটনায় সাংগঠনিক শাস্তি আদেলুর রহমানের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাটাইমস
| আপডেট : ২৭ মে ২০২২, ০৮:৫৫ | প্রকাশিত : ২৭ মে ২০২২, ০৮:৪৫
আশিক আহমেদ ও আদেলুর রহমান (বাঁ থেকে)

জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান আহসান আদেলুর রহমানের সব দলীয় পদ এক মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে।

সম্প্রতি দলটির সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলুর ছেলে ও দলের যুগ্ম মহাসচিব আশিক আহমেদ‌কে মারধর করেন পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য আদেলুর রহমান। ওই ঘটনার শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে স্থগিত করা হলো পদ।

আশিক আহমেদ সম্পর্কে আদেলুর রহমানের বোনের সৎছেলে এবং সম্পত্তি নিয়ে পারিবারিক বিরোধের জেরে ওই মারধরের ঘটনা ঘটে। তবে ঘটনাটি পার্টি কার্যালয়ে ঘটেছিল।

গত ৯ মে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে আশিক আহমেদকে মারধর করেন নীলফামারী-৪ আসনের সংসদ সদস্য আদেলুর রহমান। ওই ঘটনায় ১২ মে আদেলুরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেন দলের মহাসচিব মো. মুজিবুল হক। তিন দিনের মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়।

পার্টির দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, নোটিসের জবাবে আদেলুর রহমান মারধরের কথা স্বীকার করেছেন। তিনি দুঃখও প্রকাশ করেছেন। কিন্তু দলীয় ‘শৃঙ্খলা’র স্বার্থে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের এই শাস্তি অনুমোদন করেছেন।

তবে এ বিষয়ে দলের কেউ কথা বলতে রাজি হননি।

আহসান আদেলুর রহমান জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান ও কোষাধ্যক্ষ। তিনি জি এম কাদেরের ভাগিনা। আর আদেলুরের বোন মেহেজেবুন নেসা (টুম্পা) আশিকের সৎমা। ২০০৪ সালে জিয়াউদ্দিন বাবলুর প্রথম স্ত্রী মারা যান। ২০১৭ সালের ২১ এপ্রিল এরশাদের ভাগ্নি ও মেরিনা রহমানের মেয়ে মেহেজেবুন নেসাকে বিয়ে করেন বাবলু।

সম্পত্তি নিয়ে পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আদেলুর রহমান মারধর করেন বলে জানিয়েছেন আশিক আহমেদ। এ ঘটনায় তিনি দলের কাছে বিচার চেয়েছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২৭মে/এফএ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :