১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশে বাধা দেওয়া হবে না: কাদের

জামালপুর প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৯:২৯

আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানীতে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করতে বিএনপিকে বাধা দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তবে লাঠি-আগুন নিয়ে এলে তাদের কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘১০ তারিখে (ডিসেম্বর) আমরা বাধা দিতে চাই না। বিএনপি সমাবেশ করুক শান্তিপূর্ণ পরিবেশে—এটাই আমরা চাই। তবে আগুন আর লাঠি নিয়ে এলে খেলা হবে। আপনারা আগুন আর লাঠি নিয়ে এলে আমাদের নেতারা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ললিপপ চুষবেন—এটা হবে না।’

সোমবার জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জিলা স্কুল মাঠে দুপুর দুইটায় শুরু হওয়া সম্মেলন উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি মণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক।

সম্মেলনে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসাবে অ্যাডভোকেট বাকি বিল্লাহ ও বাবু বিজন কুমার চন্দকে সাধারণ সম্পাদক হিসাবে ঘোষণা করেন সেতুমন্ত্রী।

অ্যাডভোকেট বাকি বিল্লাহর সভাপতিত্বে এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

‘১০ ডিসেম্বর আমরাও প্রস্তুত আছি। খেলা হবে। সামনের সারিতে আমাদের কেন্দ্রীয় নেতারা থাকবেন’— বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ফখরুল কী বলে জানেন, ১০ তারিখে তিনি নাকি হ্যামিলিনের বংশীবাদকের মতো বাঁশিতে ফুঁ দেবেন, এতেই নাকি অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে এ সরকারের পতন হবে!’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাদের আরও বলেন কারবালায়ও শিশু হত্যা হয়নি, নারী হত্যা হয়নি। কিন্তু পঁচাত্তরে অবলা নারী ও শিশুকেও হত্যা করা হয়েছে। এরপর জয়বাংলা নিষিদ্ধ করা হয়, ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ নিষিদ্ধ করা হয়, মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধও নিষিদ্ধ হয়ে যায়। আর এসবের হোতা খন্দকার মোশতাকের প্রধান সেনাপতি জিয়াউর রহমান।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মাঝে উৎসবমূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। নৌকার আদলে বড় মঞ্চ বানানো হয় জেলা স্কুল মাঠে।

সম্মেলনে স্থলে জেলার প্রায় সব এলাকা থেকে দলে দলে নেতাকর্মীরা সম্মেলনে যোগ দিয়ে জনসমুদ্রের সৃষ্টি হয়। এই সম্মেলনে লক্ষাধিক মানুষের সমাগম ঘটছে বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, বাবু অসিম কুমার উকিল, শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, মারুফা আক্তার পপিসহ অন্যন্য কেন্দ্রীয় পর্যায়ের শীর্ষ নেতারা সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

(ঢাকাটাইমস/২৮নভেম্বর/ইএস)

সংবাদটি শেয়ার করুন

রাজনীতি বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর সর্বশেষ

বেআইনি সমাবেশ: যুবদলের ৬ নেতাকর্মীর ২৭ মাসের কারাদণ্ড

গোলামির ভিত্তিতে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক ছিন্ন করতে হবে: ১২ দলীয় জোট

খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য দরকার রাজনৈতিক দাওয়াই: মির্জা আব্বাস

২০-৩০ লাখ লোকের সমাবেশ ভণ্ডুল করে আন্দোলন শেষ হয় না: আমির খসরু

কোটার কারণে নাগরিকদের মধ্যকার শ্রেণিবৈষম্য আরও প্রকট হবে: এবি পার্টি

পাবলিক সার্ভিস কমিশন ভেঙে দেওয়ার দাবি ফিরোজ রশিদের

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আদালতের টেলিপ্যাথিক সম্পর্ক থাকতে পারে: রিজভী

কমিটি হলেও সিনিয়র জুনিয়রের ‘ফাঁড়া’, আক্ষেপ বেশি ঢাকা দক্ষিণে

অবৈধ সরকার জনস্বার্থ বিরোধী কর্মকাণ্ড করেই চলছে: ইসলামী যুব আন্দোলন

চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে গেলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ফারুক

এই বিভাগের সব খবর

শিরোনাম :