ফেনীতে যুবলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০

ফেনী প্রতিনিধি, ঢাকাটাইমস
 | প্রকাশিত : ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ১৪:২০

ফেনী শহরের পুলিশ কোয়ার্টার এলাকায় স্থানীয় যুবলীগের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি জ্যাকি ও সম্পাদক শুভর অনুসারীদের সঙ্গে কারাগার থেকে সদ্য জামিনে মুক্তি পাওয়া যুবলীগ নেতা সাব্বিরের অনুসারীদের মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।

বুধবার রাত ৮টার দিকে শহরের শাহীন একাডেমি সড়কে এ ঘটনা ঘটে। এতে মো. মানিক নামে এক কিশোর গুলিবিদ্ধ ও সাব্বিরের অনুসারীদের ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কিছুদিন আগে শহিদ শহিদুল্লাহ কায়সার সড়কের ধানসিঁড়ি রেস্তোরায় হামলার অন্যতম আসামি যুবলীগ নেতা সাব্বির জেল থেকে জামিনে বের হয়ে আসায় শহরের পুলিশ কোয়ার্টার এলাকায় তার অনুসারীরা শোডাউন দেন। এ সময় শাহীন একাডেমি এমরান মিয়ার কলোনি সংলগ্ন স্থানে জ্যাকি-শুভর অনুসারীদের সঙ্গে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষে এক কিশোর গুলিবিদ্ধ ও ১০ জন আহত হয়েছে।

গুলিবিদ্ধ মো. মানিককে (১৬) আহত অবস্থায় ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার গ্রামের বাড়ি রংপুর জেলায়।

আহত মো. মানিক জানায়, বিএনপি-জামায়াতের অবরোধে সহিংসতা ঠেকাতে ওয়ার্ড যুবলীগের বড়ভাই জ্যাকি ও শুভর সঙ্গে শহীদ শহিদুল্লাহ কায়সার সড়কের এসি মার্কেটের সামনে দায়িত্ব পালন করছিলাম। হঠাৎ খবর আসে সাব্বির, শুভ ভাইয়ের অনুসারীদের মারধর করছে। জ্যাকি ও শুভ ভাইসহ আমরা ১০-১২ জন সেখানে পৌঁছানো মাত্রই সাব্বির আমাদের উদ্দেশ্য করে গুলি ছোঁড়েন। তখন গুলি এসে আমার ডান হাতে লাগে।

মানিকের মা নুর নাহার বলেন, আমার ছেলেকে যারা গুলি করেছে তাদের বিচার দাবি করছি। আমরা গরিব মানুষ রাজনীতি বুঝি না। আমার ছেলেকে যারা এ পথে নিয়ে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে তাদেরও বিচার দাবি করছি।

এ ঘটনায় যুবলীগ নেতা সফিউল্লাহ শুভ বলেন, ধানসিঁড়ি রেস্তোরাঁয় আমার ওপর হামলার অন্যতম আসামি সাব্বির জামিনে মুক্ত হয়ে এসেই আমার ছোট ভাইদের ওপর সশস্ত্র হামলা করেছে। আমার এক কর্মী গুলিবিদ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

ফেনীর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আসিফ ইকবাল জানান, মানিক নামের এক কিশোর গুলিবিদ্ধ অবস্থায় রাতে হাসপাতালে আসে। তার ডান হাতে কনুইয়ের উপর গুলি এক দিক দিয়ে ঢুকে অপর দিক দিয়ে বের হয়ে যায়। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি দেয়া হয়েছে।

ফেনী মডেল থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, শাহীন একাডেমি রোডে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে একজন গুলিবিদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। গুলিবিদ্ধ ব্যক্তির সাথে কথা বলেছি আমরা। যেহেতু সে অসুস্থ তাই পরিপূর্ণ তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে ঘটনায় জড়িতদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত বলা যাবে৷

(ঢাকাটাইমস/৩০ নভেম্বর/ইএইচ)

সংবাদটি শেয়ার করুন

সারাদেশ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদন বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি বিনোদন খেলাধুলা
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

শিরোনাম :